মমতা-অভিষেকের ‘খাসতালুক’ থেকে ঝাড়গ্রাম, নির্বাচনের ২ দিন আগে প্রশাসনের ৫ জন IAS-IPS কে বদলি করল কমিশন

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, কলকাতা, ২৫ মার্চ: প্রথম দফা নির্বাচন আর কয়েক ঘন্টা পরেই। মাঝখানে শুধু শুক্রবার (২৬ মার্চ)। ২৭ শে মার্চ সকাল ৭ টায় শুরু ভোটগ্রহণ। তার কয়েকঘন্টা আগেই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি রদবদল করল নির্বাচন কমিশন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তাঁর ভাইপো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘খাসতালুক’ যথাক্রমে দক্ষিণ কলকাতা ও ডায়মন্ড হারবার থেকে জঙ্গলমহল ঝাড়গ্রাম, ৫ জন‌ পদস্থ IAS ও IPS অফিসারকে বদলি করল নির্বাচন কমিশন। আজ সকালে এই বিষয়ে নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে।

thebengalpost.in
বদলির আদেশ :

নতুন নির্দেশিকায় দক্ষিণ কলকাতার ডিসিপি সুধীর নীলকণ্ঠের বদলির নির্দেশ এসেছে। তাঁর জায়গায় আসছেন আইপিএস কর্তা আকাশ মাঘারিয়া। আবার, মুখ্যমন্ত্রীর ভাইপো তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের খাসতালুক ডায়মন্ড হারবারের পুলিশ সুপারকেও বদলি করা হয়েছে। এই পদের দায়িত্বে ছিলেন আইপিএস কর্তা অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়। নতুন দায়িত্বে আসছেন অরিজিৎ সিনহা (IPS)। এ ছাড়াও, এডিজি (পশ্চিমাঞ্চল) সঞ্জয় সিংহের বদলি হিসাবে আসছেন রাজেশ কুমার (IPS)। ঝাড়গ্রামের জেলাশাসক তথা ডিইও (District Election Officer) আয়েশা রানি’র জায়গায় আসছেন জয়েশী দাশগুপ্ত (IAS)। ঝাড়গ্রামের সদ্যপ্রাক্তন ডিইও আয়েশা রানি নির্বাচন চলা পর্যন্ত মুখ্যসচিবের দফতরে যুক্ত থাকবেন বলেও জানানো হয়েছে। সরানো হচ্ছে কোচ বিহারের পুলিশ সুপারের দায়িত্বে থাকা কে. কান্নানকেও। তাঁর স্থলাভিষিক্ত হবেন আইপিএস কর্তা দেবাশিস ধর। নির্বাচন কমিশনের তরফে আজ রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়’কে চিঠি দিয়ে এই বদলির তালিকা পাঠানো হয়েছে। সেই সঙ্গে জানানো হয়েছে, নির্বাচন শেষ না হওয়া পর্যন্ত বদলি হওয়া অফিসারদের কোনও নির্বাচনী কাজে মোতায়েন করা যাবে না।

thebengalpost.in
আয়েশা রানী এ :

আরও পড়ুন -   পাটনাবাজারে ফের সংক্রমণ, পুলিশ সুপারের বাংলোর পুজারি সহ শহরে আক্রান্ত ৩, শহরতলীতে আরো ২ জন, জেলায় ৭৭ জন সংক্রমিত