“নন্দীগ্রামে মমতাকে হারাবোই”, চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েই দিলীপ-মুকুলদের সঙ্গে দিল্লি চললেন শুভেন্দু

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, কলকাতা ও পশ্চিম মেদিনীপুর, ৩ মার্চ : পিংলা বিধানসভার অন্তর্গত চক গোপীনাথপুরের সভায় আজ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্দেশ্যে সরাসরি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন মেদিনীপুরের ভূমিপুত্র শুভেন্দু অধিকারী। তিনি বললেন, “দল আমাকেই প্রার্থী করুক বা অন্য কাউকে, নন্দীগ্রামে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দায়িত্ব নিয়ে হারাব।” অবশ্য, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও যে সহজে ছেড়ে দেওয়ার পাত্রী নন,‌ বুঝিয়ে দিলেন। নন্দীগ্রামে দু’দুটি অফিস চালু হয়ে যাচ্ছে তাঁর। সবমিলিয়ে, নন্দীগ্রামের লড়াইয়ের দিকে যে সারা রাজ্য তাকিয়ে থাকবে, তা বলাই বাহুল্য! আগামী শুক্রবার (৫ মার) দুই দলই তাদের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করতে চলেছে। তার আগেই, একুশের ভোটযুদ্ধে দুই দলের দুই প্রধান সেনাপতিই যে নন্দীগ্রামের প্রার্থী হতে চলেছেন এই বিষয়টি মোটামুটি পাকা হয়ে গেছে।

thebengalpost.in
পিংলার সভায় শুভেন্দু অধিকারী :

পিংলা বিধানসভায় নির্বাচনী প্রচার ও যোগদান মেলায় যোগ দিতে এদিন শুভেন্দু অধিকারী বেলা ৩ টা নাগাদ চক গোপীনাথপুরের সভায় উপস্থিত হয়েছিলেন। তাঁর হাত ধরে তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগদান করলেন জেলার একাধিক নেতা। ডেবরার প্রাক্তন তৃনমুল ব্লক সভাপতি রতন দে, তৃনমুল যুব নেতা অনিরূদ্ধ দেববর্মন (বাপি) ও বসন্তপুরের সুশান্ত পাল ( বাচ্চু), আজ শুভেন্দু অধিকারীর জনসভায় বিজেপিতে যোগদান করেন। সেখানেই তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়’কে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেন। সভা শেষেই আজ শুভেন্দু দিল্লির উদ্দেশ্যে রওনা দিলেন। পিংলার সভাতেই তিনি বলেন, “দলের বৈঠকে যোগ দিতে দিল্লি যেতে হবে।” দিলীপ ঘোষ, মুকুল রায়, কৈলাস বিজয়বর্গীয়, অমিতাভ চক্রবর্তী এবং শিবপ্রকাশ এর সঙ্গে শুভেন্দু অধিকারীও চললেন দিল্লি। উদ্দেশ্য, বিজেপির প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করা। সেখানে অমিত শাহ, জে পি নাড্ডা, অরবিন্দ মেনন প্রমুখের সঙ্গে বৈঠকেই চূড়ান্ত হবে বিজেপির প্রার্থী তালিকা। আর সেদিকেই তাকিয়ে আছেন অনুগামীরাও!

thebengalpost.in
পিংলায় একাধিক তৃণমূল নেতা বিজেপিতে যোগদান করলেন :

আরও পড়ুন -   রণক্ষেত্র রাজপথ! উদ্ধার আগ্নেয়াস্ত্র, রং মেশানো জলকামান, রক্তবমি রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়ের