বুধবার দুপুরে দীঘা ও বালেশ্বরের মাঝখানে আছড়ে পড়বে “যশ”! ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে বেলদা-খাকুড়দা-দাঁতন সংলগ্ন এলাকাগুলিও

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, কলকাতা ও পশ্চিম মেদিনীপুর, ২৪ মে: বুধবার দুপুরে পূর্ব মেদিনীপুরের দীঘা ও ওড়িশার বালেশ্বরের মাঝামাঝি কোনো এলাকার ‘ল্যাণ্ডফল’ করবে সুপার সাইক্লোন যশ বা ইয়াশ (Yaas)। ইতিমধ্যে, নিম্নচাপ বদলে গেছে ঘূর্ণিঝড়ে। বৃষ্টি ও ঝড়ের গতিবেগ ক্রমশঃ বাড়বে। ২৬ শে মে সকাল থেকে সুপার সাইক্লোন “যশ” ওড়িশার পারাদ্বীপ ও পশ্চিমবঙ্গের সাগরদ্বীপ এলাকায় তাণ্ডব চালাবে ১৫৫-১৬৫ কিলোমিটার বেগে। দুপুরে বালেশ্বর ও দীঘার মধ্যবর্তী এলাকায় প্রবল শক্তি নিয়ে আছড়ে পড়বে (ল্যাণ্ডফল) যশ। ১৮৫ কিলোমিটার হবে সর্বোচ্চ গতিবেগ। এমনটাই জানিয়েছেন আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাঞ্চলীয় অধিকর্তা।

thebengalpost.in
যশ আছড়ে পড়তে চলেছে বুধবার দুপুরে :

প্রসঙ্গত, এই মুহূর্তে দীঘা থেকে ৬১০ কিলোমিটার দূরে আছে ঘূর্ণিঝড়। বুধবার সকাল থেকেই পূর্ব মেদিনীপুর জুড়ে ১৫৫ কিলোমিটার গতিবেগে প্রবাহিত হবে এই সুপার সাইক্লোন। পশ্চিম মেদিনীপুরের একেবারে খড়্গপুর, জকপুর, মাদপুর থেকে বেলদা-খাকুড়দা ও দাঁতন, কেশিয়াড়ি সংলগ্ন এলাকা চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করা হচ্ছে। অন্যদিকে, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর ছাড়াও ঝাড়গ্রামেও আগামীকাল থেকে অতি বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও, কলকাতা, দুই ২৪ পরগণা সহ দক্ষিণবঙ্গের উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে তীব্র বৃষ্টিপাত ও সর্বোচ্চ ৯০-১০০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়ার পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে বুধবার। তার আগে মঙ্গলবার বৃষ্টিপাতের সঙ্গে ৬০-৭০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে। বালেশ্বর দিয়ে বুধবার দুপুরে সুপার সাইক্লোন “যশ” ক্রমশঃ শক্তি হারিয়ে উত্তর পশ্চিমে ঝাড়খণ্ডে প্রবেশ করবে বলে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন -   'নত মস্তকে' প্রণাম মেদিনীপুরের পুণ্য ভূমিকে, পিঠ চাপড়ে দিলেন রাজীব-শুভেন্দুর, মুষ্ঠিবদ্ধ হাতে প্রতিক্রিয়া রাজীবের