বিয়ের আগেই দরকার থ্যালাসেমিয়া টেস্ট! প্রত্যন্ত জঙ্গলমহলের দরজায় দরজায় পোস্টার সাঁটাচ্ছেন শিক্ষক

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, ঝাড়গ্রাম, ২৭ ফেব্রুয়ারি: বিয়ের পিঁড়িতে বসার আগে, “থ্যালাসেমিয়া টেস্ট” করানো প্রয়োজন, সচেতনতার এই বার্তা দিয়ে জঙ্গলমহলের প্রত্যন্ত গ্রামগুলিতে একপ্রকার নিজের উদ্যোগেই পোস্টার চিটিয়ে চলেছেন, ঝাড়গ্ৰাম জেলার গোপীবল্লভপুর ২ নম্বর ব্লকের বেলিয়াবেড়া কৃষ্ণ চন্দ্র মেমোরিয়াল উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক সুব্রত মহাপাত্র। অত্যন্ত প্রাসঙ্গিক ও গুরুত্বপূর্ণ এই কাজ নীরবে করে চলেছেন পেশায় শিক্ষক ও নেশায় সমাজকর্মী সুব্রত বাবু।
বিয়ের আগেই দরকার থ্যালাসেমিয়া টেস্ট! প্রত্যন্ত জঙ্গলমহলের দরজায় দরজায় পোস্টার সাঁটাচ্ছেন শিক্ষক:

আরও পড়ুন -   কর্তব্যনিষ্ঠা'র প্রমাণ দিলেন শুরুতেই! করোনা উত্তীর্ণ হওয়ার পরই দায়িত্ব নিলেন ডাঃ বেরা

স্কুল ছুটির পর একজন ছাত্রের সাইকেল নিয়ে, পাড়ায় পাড়ায় ঘুরে, মানুষজনের কাছে গিয়ে বোঝাচ্ছেন কেন বিয়ের আগে “থ্যালাসেমিয়া পরীক্ষা ” করা উচিত। আর এই কাজের জন্য সুব্রত বাবু সপ্তাহে তিন দিন স্কুলের হস্টেলেই একটা রুমে থেকে যান, বাড়ি ফেরেন না মেদিনীপুর শহরে। জানা যায়, সুব্রত বাবু নিজের উদ্যোগে, পাঁচ হাজার টাকার পোস্টার ছাপিয়েছেন। নিজেই পোস্টারও চিটোচ্ছেন। সুব্রত বাবু জানান, তাঁর এক প্রিয় ছাত্রের পুত্র থ্যালাসেমিয়া রোগ নিয়ে জন্ম নিয়েছে। ওরা দুজনেই বাহক ছিল। সেই ছাত্রের করুন কাহিনি শুনে, তিনি এই সমাজ সচেতনতার কাজে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন, যাতে তাঁর আর কোন ছাত্র-ছাত্রী বা অন্য কারুর জীবনে এই অন্ধকার নেমে না আসে! সুব্রত বাবু’র এই আন্তরিক উদ্যোগকে সাধুবাদ জানানো হয়েছে প্রশাসনের পক্ষ থেকেও।