সরস্বতী পুজোতেই প্রাথমিক শিক্ষক হওয়ার সুখবর পেলেন ১৫২৮৪ প্রার্থী, এখনও দুঃশ্চিন্তায় অফলাইনের আবেদনকারীরা, পিডিএফ প্রকাশের দাবি অসফলদের

thebengalpost.in
সরস্বতী পুজোতেই প্রাথমিক শিক্ষক হওয়ার সুখবর পেলেন ১৫২৮৪ প্রার্থী, এখনও দুঃশ্চিন্তায় অফলাইনে আবেদনকারীরা, পিডিএফ প্রকাশের দাবি অসফলদের :
বিজ্ঞাপন

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, কলকাতা, ১৬ ফেব্রুয়ারি: প্রকাশিত হল ২০১৪ প্রাইমারি টেট পাস ও প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত’দের চূড়ান্ত ফলাফল। গতকাল, ১৫ ই ফেব্রুয়ারি রাত্রি সাড়ে এগারোটা নাগাদ শিক্ষক নিয়োগের ফলাফল প্রকাশের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয় এবং আজ অর্থাৎ ১৬ ই ফেব্রুয়ারি গভীর রাতে ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, ১৫,২৮৪ জন পরীক্ষার্থী সফল হয়েছে। নিজেদের রোল নম্বর দিয়ে (www.wbbpe.org সাইটে গিয়ে) পরীক্ষার্থীরা ‘সফল’ (empanelled) কিনা জেনে নিতে পারছেন। তবে, পিডিএফ (PDF) আকারে প্রকাশিত হয়নি পূর্ণাঙ্গ মেধাতালিকা। এর ফলে, অসফল প্রশিক্ষণ প্রাপ্তদের (B.Ed & D.El.Ed) একটা বড় অংশ ক্ষুব্ধ হয়েছেন। অনেকেই, স্বচ্ছতা বজায় রাখা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন! অন্যদিকে, ঘোষিত ১৬,৫০০ পদের মধ্যে ১৫,২৮৪ জনকে প্রথম দফার জন্য Empanelled বা মেধাতালিকাভুক্ত বলে গণ্য করা হয়েছে। অবশিষ্ট, ১২১৬ টি পদ সংরক্ষণ করে রাখা হয়েছে, কেস পিটিশনার, অফলাইনে আবেদনকারী সহ অবশিষ্ট পরীক্ষার্থীদের জন্য, যারা প্রথম দফার মেধাতালিকায় ঠাঁয় পাননি।

thebengalpost.in
সরস্বতী পুজোতেই প্রাথমিক শিক্ষক হওয়ার সুখবর পেলেন ১৫২৮৪ প্রার্থী, এখনও দুঃশ্চিন্তায় অফলাইনে আবেদনকারীরা, পিডিএফ প্রকাশের দাবি অসফলদের :

বিজ্ঞাপন
[ আরও পড়ুন -   "নতুন করে এখন শিক্ষক নিয়োগ সম্ভব নয়", শিক্ষামন্ত্রীর অডিও ভাইরাল হল অনুপম হাজরার সৌজন্যে ]

এদিকে, প্রথম দফার মেধাতালিকা প্রকাশিত হয়ে গেলেও, এখনও ইন্টারভিউ’তে ডাকা হয়নি টেট পাস ও প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত কয়েকশো পরীক্ষার্থী’কে, যারা গত ৯ ও ১০ জানুয়ারি পর্ষদে গিয়ে অফলাইনে আবেদনপত্র জমা করে এসেছিলেন। কিছু সংখ্যক পদ ফাঁকা (১২১৬) রাখা হলেও, এখনও দুঃশ্চিন্তায় এই ধরনের যোগ্য পরীক্ষার্থীরা। অপরদিকে, প্রশ্ন ভুল মামলায় কোর্টের নির্দেশে যে কয়েকহাজার পরীক্ষার্থী অফলাইনে আবেদন করেছিলেন, গত ৭ ও ৮ জানুয়ারি, তাদের মধ্যে মাত্র ৭৩৮ জন পাস করেছেন বলে পর্ষদ জানিয়েছে। এই পরীক্ষার্থী’রা ২০১৪ সালের প্রাইমারি টেটের যে রেজাল্ট ২০১৬ তে প্রকাশিত হয়েছিল, তাতে অকৃতকার্য (৬০ শতাংশ নম্বর পাননি) হয়েছিলেন। পরবর্তী সময়ে, কলকাতা হাইকোর্টের রায়ে এই পরীক্ষার্থীরা ৬ টি প্রশ্ন ভুল মামলায় জয়ী হয়েছিলেন। এদের মধ্যেই যারা ৬ নম্বর (বা, তার থেকে কম) পেয়ে কৃতকার্য হলেন (পর্ষদের বিচরে) তাদের সংখ্যা মাত্র ৭৩৮ বলে জানানো হয়েছে। এই সমস্ত প্রার্থীদের এবং অফলাইনে আবেদনকারী’দের জন্য ১২১৬ টি পদ ফাঁকা রাখা হলেও, কবে নিয়োগ করা হবে তা এখনও জানানো হয়নি। অন্যদিকে, সফলদের কাউন্সেলিং আগামীকাল থেকে হতে পারে বলে জানানো হয়েছে শিক্ষামন্ত্রী ও পর্ষদ সূত্রে।

[ আরও পড়ুন -   প্রাথমিকে টেট পাসদের ইন্টারভিউ ১০ জানুয়ারি থেকে, নতুন টেট পরীক্ষা ৩১ জানুয়ারি, ট্যাবের বদলে ১০,০০০ টাকা দ্বাদশের ছাত্র-ছাত্রীদের ]
Advertisements

Advertisements