রাজ্য কমিটিতে প্রদীপ-ধীমান! পশ্চিম মেদিনীপুরের দুই ‘বিদ্রোহী’ বিজেপি নেতা ‘স্থায়ী আমন্ত্রিত’ পদ পেলেন

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পশ্চিম মেদিনীপুর ও কলকাতা, ১৬ মার্চ :দলের প্রার্থী তালিকা দেখে ক্ষোভে ফেটে পড়েছিলেন! দীর্ঘদিন নিঃস্বার্থভাবে দলের সেবা করা সত্ত্বেও, কঠিনতম সময়ে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় নেতৃত্ব দেওয়ার পরেও তাঁদের প্রার্থী করা হয়নি। জেলার কোনো একটি আসনে নয়, একাধিক আসনের ক্ষেত্রেই ‘আনকোরা’ প্রার্থীদের বেছে নেওয়া হয়েছে, বিশেষ অঙ্গুলি হেলনে; এই অভিযোগে নিজেরাই ‘নির্দল প্রার্থী’ হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন গত ৯ ই মার্চ। দলের প্রাক্তন জেলা সহ-সভাপতি প্রদীপ লোধা গড়বেতা আসনে এবং প্রাক্তন জেলা সভাপতি ধীমান কোলে শালবনী আসনে নমিনেশন জমা দিয়ে, দলকে রীতিমতো দুঃশ্চিন্তায় ফেলে দিয়েছিলেন। এরপর আসরে নামতে হয় দলের শীর্ষ নেতৃত্ব’কে।‌ সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক তথা পশ্চিমবঙ্গের পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয় সরাসরি ফোন করে তাঁদের সাথে কথা বলেন এবং আশ্বস্ত করেন। এরপর, তাঁদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে জানিয়ে দেন, দলের ‘সম্পদ’ হিসেবে, পুরানো এবং অভিজ্ঞ কার্যকর্তা হিসেবে তাঁদের যথাযোগ্য মর্যাদা দেওয়া হবে। এরপরই পিছিয়ে আসেন বিজেপি’র দুই অভিজ্ঞ সেনাপতি। ১২ ই মার্চ তাঁরা নমিনেশন বা মনোনয়ন প্রত্যাহার করেন। দীর্ঘদিন পর জেলা পার্টি অফিসে (মেদিনীপুর শহরে) গিয়ে সাংবাদিক বৈঠক করে জানিয়ে দেন, “দলের প্রার্থীদের হয়েই তাঁরা প্রচারে নামবেন।” এবার, দলের প্রতি বিশ্বাস ও আস্থা বজায় রাখার পুরস্কারও পেলেন হাতেনাতে! দু’জনকেই রাজ্য কমিটির ‘স্থায়ী আমন্ত্রিত’ সদস্য হিসেবে নিয়োগ করা হল।

thebengalpost.in
রাজ্য কমিটির নির্দেশ :

সোমবার দলের রাজ্য কমিটির তরফে সহ সভাপতি প্রতাপ ব্যানার্জি একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে জানিয়ে দেন, দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ দুই অভিজ্ঞ বিজেপি নেতা যথাক্রমে প্রদীপ লোধা ও ধীমান কোলে’কে রাজ্য কমিটির ‘স্থায়ী আমন্ত্রিত’ (Permanent Invitee) সদস্য রূপে নিযুক্ত করেছেন। এই ঘোষণায় খুশি জঙ্গলমহলের পোড়খাওয়া দুই গেরুয়া সৈনিক। প্রদীপ বাবু জানিয়েছেন, “দলের নির্দেশ মেনে প্রার্থীদের হয়ে প্রচারে নেমে পড়েছি। দলের তরফে এই সম্মান দেওয়ায় খুশি। নিজেদের দায়িত্ব পালন করার চেষ্টা করব।” রাজ্য কমিটির সিদ্ধান্ত’কে স্বাগত জানানো হয়েছে জেলা কমিটির পক্ষ থেকেও। সকলেই একবাক্যে স্বীকার করছেন, “জেলায় বিজেপির অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখার ক্ষেত্রে প্রদীপ লোধা ও ধীমান কোলে’র অবদান অনস্বীকার্য। তাই তাঁদের প্রতি এই সম্মান প্রদর্শন অত্যন্ত প্রাসঙ্গিক ও যথাযথ।”

thebengalpost.in
ধীমান কোলে ও প্রদীপ লোধা :

thebengalpost.in
বিজ্ঞাপন (Advertisement) :

আরও পড়ুন -   শাহি সভায় ভিড় না থাকলেও 'মন্ত্রীসভা' সাজাচ্ছে বিজেপি! রাজ্যসভা থেকে ইস্তফা দিয়ে মুখ্যমন্ত্রীত্বের দৌড়ে স্বপন দাশগুপ্ত