মেদিনীপুর শহরে রাত্রি ৯ টার মধ্যে দোকানপাট বন্ধের নির্দেশ দিল পুলিশ, “মাস্ক” না পরলেই আটক! রেলের “বজ্র আঁটুনি”, খড়্গপুর স্টেশনে “ফস্কা গেরো”

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, মেদিনীপুর ও খড়্গপুর, ১৯ এপ্রিল: আগামীকাল থেকেই মেদিনীপুর শহরের সমস্ত দোকানপাট বন্ধ করে দিতে হবে রাত্রি ৯ টার মধ্যে! স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হল কোতোয়ালী থানার পক্ষ থেকে। সোমবার সন্ধ্যায় কোতোয়ালী থানার IC পার্থসারথি পালের নেতৃত্বে বিশাল পুলিশ বাহিনী শহরের রাস্তায় ঘুরে ঘুরে, রাস্তার ধারের প্রতিটি ছোট-বড় দোকানের কর্তৃপক্ষকে এই বিষয়ে স্পষ্ট নির্দেশ দিয়ে দেন। শহরের সব দোকানপাটই কি রাত্রি ৯ টার মধ্যে বন্ধ করতে হবে, আগামীকাল থেকে? জবাবে এক পুলিশ আধিকারিক জানান, “হ্যাঁ।” জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে এমনটাই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

thebengalpost.in
মেদিনীপুর শহরে মাস্ক অভিযানে পুলিশ :

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, খড়্গপুর শহর ও মেদিনীপুর শহরে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়েও “ভয়ঙ্কর দাপট” লক্ষ্য করা যাচ্ছে। গত ১ সপ্তাহে দুই শহরেই সংক্রমিতের সংখ্যা ১০০ ছাড়িয়ে গেছে, জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের রিপোর্ট অনুযায়ী। এই পরিস্থিতিতে, জেলা পুলিশ ও কোতোয়ালী থানার পক্ষ থেকে সমস্ত বিষয়েই কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে। আজ সারাদিনই শহরের বিভিন্ন এলাকায় “মাস্ক চেকিং” অভিযানে বেরোয় পুলিশ। সন্ধ্যা নাগাদ কোতোয়ালী থানার আইসি (IC)’র নেতৃত্বে অভিযান চালানো হয়। বেশ কয়েকজন যুবককে বিনা মাস্কে বাইরে বেরোনোয় আটক করে পুলিশ! পরে অবশ্য মাস্ক কিনে পরতে বলা হয় তাদের এবং চরম সতর্কবার্তা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়।

thebengalpost.in
খড়্গপুর স্টেশনে মাস্ক ছাড়াই অনেকে :

অন্যদিকে, রেলের তরফে একাধিক বিষয়ে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হলেও, সোমবার খড়্গপুর স্টেশন চত্বরে দেখা গেল “বজ্র আঁটুনি, ফস্কা গেরো!” বিনা মাস্কেই ঘোরাফেরা করছেন একাধিক জন। তবে, সচেতন যাত্রীদের অধিকাংশের মুখে ছিল মাস্ক। তাঁদের দাবি, “থার্মাল চেকিং এখনও শুরু হয়নি। অবিলম্বে শুরু করা হোক। অনেকেই মাস্ক পরছেন না, এই বিষয়ে কঠোর ব্যবস্থা নিক রেল পুলিশ।” সোমবার দূরপাল্লার ট্রেনে চেন্নাই থেকে ফেরা শ্রাবণী ঘোষ দত্ত, পল্লব মন্ডলরা বললেন, “চেন্নাইয়ের স্টেশনে রেলের যা কড়াকড়ি, এখানে (খড়্গপুরে) তা নেই!” সুদীপ পাল নামে এক বর্ষীয়ান যাত্রী বললেন, “রেল নাকি মাস্ক না পরলে ৫০০ টাকা ফাইন নির্ধারণ করেছে, কিন্তু তা সত্বেও অনেকের মুখে মাস্ক নেই। সকলের ভালোর জন্য মাস্ক ব্যবহার করা উচিৎ প্রত্যেকের।”

thebengalpost.in
রেলশহরে ভ্রুক্ষেপ নেই সাধারণ মানুষের :

আরও পড়ুন -   মেদিনীপুর থেকে কলকাতা হন্যে হয়ে ঘুরেও বিনা চিকিৎসায় মৃত্যু ৮ বছরের বালকের, কাজে এলনা স্বাস্থ্য সাথী কার্ড, ৪০ হাজার টাকা বিল মিটিয়েও হারাতে হল পুত্রকে