এ যেন ‘যমালয়ে জীবন্ত মানুষ’! মুখ্যমন্ত্রীর র‍্যালিতে মহাদেবের বাহন পাঠাল কে, খুঁজছেন হাওড়াবাসী

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পশ্চিম মেদিনীপুর, ৩ এপ্রিল: এ যেন ভানু বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘যমালয়ে জীবন্ত মানুষ’ সিনেমা! ছবির নায়ক ভানু (সিধু) যমরাজকে শায়েস্তা করতে ভোলা নামক ষাঁড়কে লেলিয়ে দিয়েছিলেন! নরকে তখন রীতিমতো হুলুস্থুল কাণ্ড! প্রাণ বাঁচাতে দৌড়চ্ছে গোটা যমালয়। বাংলা সিনেমার ইতিহাসে কিংবদন্তি সেই দৃশ্যের আধুনিক দৃশ্যায়ন যেন প্রত্যক্ষ করলেন হাওড়াবাসী, তথা (মিডিয়ার দৌলতে) সারা রাজ্যের মানুষ। এদিন সালকিয়ায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রোড শো শেষ হওয়ার কিছুক্ষণ আগে, হঠাৎ মিছিলের মাঝখানে ঢুকে পড়ে একটি ষাঁড়। নিমেষের মধ্যে হুলুস্থুল বেঁধে যায়! ষাঁড় বাবাজি সিং নেড়ে তেড়ে গেল সকলের দিকে। যে যার মতো দৌড়নো শুরু করল এদিক-ওদিক! বহু কষ্টে মহাদেবের বাহনটিকে শান্ত করে র‍্যালি থেকে বের করলেন পুলিশ কর্মীরা। তবে, স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী তখন হুইল চেয়ারে অনেকটাই পিছনে ছিলেন। তাই ঘটেনি বড় কোন দুর্ঘটনা! আহত হননি কোনো কর্মী-সমর্থকই।

thebengalpost.in
মুখ্যমন্ত্রী’র র‍্যালিতে ষাঁড় :

thebengalpost.in
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রোড শো’তে ষাঁড় :

যদিও, সন্ধ্যা নাগাদ হাওড়ার এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে নিমেষের মধ্যে! সোশ্যাল মিডিয়ায় যা নিয়ে নানারকম মিম, ট্রোল বা মজার মজার উক্তি-প্রত্যুক্তি শুরু হয়ে গেল। কেউবা বলছেন, এসব বিরোধীদের (বিজেপির) চক্রান্ত! কেউবা বলছেন, হাওড়াতেও কোন নিরপরাধী ‘সিধু’ (ভানু বন্দ্যোপাধ্যায়) আছেন, এ তারই কাণ্ড! আবার কেউ বা বলছেন, স্বয়ং মহাদেবই একে পাঠিয়েছেন, দিদির আঘাত কতটা গুরুতর পরীক্ষা করার জন্য! অন্য আরেকদল এক কদম এগিয়ে বলছেন, নন্দীগ্রামে দিদি পা নাচিয়েছেন, হাওড়ায় ষাঁড়ের ভয়ে হাঁটেন কিনা দেখার জন্যই নির্ঘাত কোনো চক্রান্তকারী দল একে পাঠিয়েছিল!
(কাউকে আঘাত দেওয়া এই লেখার উদ্দেশ্য নয়, নির্বাচনের উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে কিছুটা মজার রসদ জোগাতেই এই প্রতিবেদন।)

thebengalpost.in
এখনও ‘জীবন্ত’ কিংবদন্তি শিল্পী ভানু বন্দ্যোপাধ্যায় :

আরও পড়ুন -   সেই নন্দীগ্রামেই উঠে দাঁড়ালেন মমতা! শুভেন্দু'কে বিঁধে মুকুলের প্রতি 'সোহাগ'