ধর্ষকদের ফাঁসি চাই! পশ্চিম মেদিনীপুরের কলেজ ছাত্রীকে খুন-ধর্ষণের ঘটনায় বিক্ষোভের ঢেউ আছড়ে পড়ল রাজপথ থেকে স্যোশাল পথে

thebengalpost.in
বিক্ষোভ অবরোধ পশ্চিম মেদিনীপুরের পিংলায় :

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পশ্চিম মেদিনীপুর, ৪ মে: পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার পিংলা থানার জামনা গ্রামের বছর কুড়ির কলেজ ছাত্রী খুন ও ধর্ষিত হয় রাজমিস্ত্রির কাজ করতে আসা দুই শ্রমিকের দ্বারা। তাদের সহায়তা করে ওই কাজে যুক্ত এক মহিলা শ্রমিকও। সোমবার বিকেল সাড়ে তিনটা-চারটা নাগাদ ঘটে যাওয়া এই বীভৎস ঘটনায় এখন সারা রাজ্য উত্তাল! ক্ষোভে ফুঁসছে পিংলা থেকে শুরু করে সারা পশ্চিমবঙ্গ বাসী। নেটদুনিয়াতেও বিক্ষোভের ঢেউ আছড়ে টড়ল! হ্যাস-ট্যাগ (#) দিয়ে লেখা হচ্ছে- #justiceforvaswati (নাম পরিবর্তিত)। বেনজির বিক্ষোভ ও পথ অবরোধে আজ সামিল হল মৃত ও নির্যাতিতা ছাত্রীর বন্ধু-বান্ধবেরা। রাজপথ আঁকড়ে বসে থাকল প্রায় ৬ ঘন্টা! প্রবল বিক্ষোভের মুখে, পিংলা থানার ওসি শঙ্খ চ্যাটার্জি’কে হাতে তুলে নিতে হয় মাইক্রোফোন। তিনি ঘোষণা করেন, গ্রেফতার হওয়া তিন আসামীর বিরুদ্ধে গণধর্ষণ (গ্যাং রেপ), খুন ও খুন-ধর্ষণে সহযোগিতা (ওই মহিলা আসামীর ক্ষেত্রে)’র কেস দেওয়া হয়েছে। আদালতে তোলা হয়েছিল তাদের। কঠোর থেকে কঠোরতর শাস্তির জন্য পুলিশ সবরকম চেষ্টা করবে। দুপুর ১২ টা থেকে চলা পথ-অবরোধ সন্ধ্যা সাড়ে পাঁচটা নাগাদ ওঠে!

thebengalpost.in
বিক্ষোভ অবরোধ :

প্রসঙ্গত, ঘটনাস্থল থেকে গতকাল ৩ অভিযুক্তকে আটক করে নিয়ে যায় পুলিশ। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চালায়। অবশেষে আজ সকালে স্নিফার ডগ নিয়ে গিয়ে আরও নিশ্চিত হয় পুলিশ যে, ওই নির্মাণ কাজ চলা পাকাবাড়িতেই (যেখান থেকে উদ্ধার করা হয়েছিল কলেজ ছাত্রীর মৃতদেহ) ধর্ষণ ও তারপর খুন করে, ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছিল বছর কুড়ির ওই তরুণী’কে। এরপরই গ্রেফতার করা হয় অপরাধীদের, জানান ওসি। কিন্তু, অপরাধীদের ‘গ্রেফতার’ হওয়ার খবর ছিলনা, পিংলা বাসী তথা নিহত তরুণীর বন্ধু-বান্ধবদের কাছে। তারা ভেবেছিল, পুলিশ ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে! তাই, আজ সকাল সাড়ে এগারো-বারোটা থেকে, পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার পিংলা থানার অন্তর্গত বালিচক-সবং রাজ্য সড়ক পথ অবরোধ করা হয়। শাসক দলের স্থানীয় নেতৃত্বের ‌তরফে প্রথমে পথ অবরোধ করা হয়। পরে, ছাত্র-ছাত্রী ও স্থানীয় বাসিন্দারা পথ অবরোধ করে। ওসি শঙ্খ চ্যাটার্জি’র নেতৃত্বে বিশাল পুলিশ বাহিনী এসে, বিক্ষোভকারী কলেজ পড়ুয়াদের সঙ্গে কথা বলেন, প্রতিটি প্রশ্নের উত্তর দিয়ে আশ্বস্ত করেন আন্দোলনকারীদের। দ্রুত শাস্তির ব্যবস্থা না করা হলে বৃহত্তর আন্দোলন করা হবে বলে জানিয়েছেন আন্দোলন কারীরা।

thebengalpost.in
বিক্ষোভ অবরোধ পশ্চিম মেদিনীপুরের পিংলায় :

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বছর ৪০ এর ছোটু মুন্ডা, বছর ২৫ এর বিকাশ মুর্মু-ই মূল অভিযুক্ত। তারাই ধর্ষণ ও খুন‌ করে ওই তরুণী’কে। তাদের সহযোগিতা করে ওই মহিলা শ্রমিক। দোষীদের প্রত্যেকের যথাযথ শাস্তি (যাবজ্জীবন কারাদণ্ড অথবা মৃত্যুদণ্ড)’র জন্য আদালতে আবেদন করা হয়েছে বলেও জানানো হয়েছে পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে। অপরদিকে, এই নৃশংস ও পাশবিক ঘটনার বিরুদ্ধে গর্জে উঠেছে নেট দুনিয়ার ‌সচেতন নাগরিকরা। দোষীদের উপযুক্ত শাস্তি তথা এই নারকীয় অত্যাচারের প্রকৃত বিচার চেয়ে একের‌ পর এক পোষ্টের ঢেউ আছড়ে পড়ছে স্যোশাল মিডিয়ায়!

আরও পড়ুন -   কালবৈশাখী আসুক বা না আসুক, নববর্ষেই করোনা ঝড় পশ্চিম মেদিনীপুরে! সংক্রমিত ৮১,মেদিনীপুর-খড়্গপুর-ডেবরা-ঘাটাল সর্বত্র সংক্রমণের ছড়াছড়ি