‘রাজ্যপাল’ নিযুক্ত করে শিশিরকে সম্মানজনক পুনর্বাসন দিতে চায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, ৭ এপ্রিল: বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ তথা কাঁথির সাংসদ শিশির অধিকারীকে ‘রাজ্যপাল’ নিযুক্ত করে সম্মানজনক ‘পুনর্বাসন’ দেওয়ার বিষয়ে চিন্তাভাবনা শুরু করেছে কেন্দ্রীয় সরকার! মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সূত্রে এই খবর পাওয়া গেছে। সূত্রের খবর অনুযায়ী, দেশের পূর্বাঞ্চলে পশ্চিমবঙ্গ লাগোয়া দু’টি রাজ্য কেন্দ্রীয় সরকারের ভাবনায় রয়েছে। তবে, শিশির অধিকারী বা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে এখনও আনুষ্ঠানিক ভাবে এ নিয়ে কিছু খোলাসা করা হয়নি! তবে, সিনিয়র অধিকারী’র কাছে রাজ্যপাল হওয়ার প্রস্তাব এলে, তিনি হয়তো তা ফেরাবেন না বলেই জানা গেছে। সূত্রের খবর অনুযায়ী, বিধানসভা নির্বাচনের পরই দলত্যাগ বিরোধী আইনে শিশির অধিকারী, সুনীল মন্ডলদের সাংসদ পদ খারিজের আবেদন জানাবে তৃণমূল কংগ্রেস। এই পরিস্থিতিতে বিজেপির পক্ষ থেকে শিশিরকে “সম্মানজনক পুনর্বাসন” দেওয়ার ভাবনাচিন্তা করা হচ্ছে বলে জানা যায়। অপরদিকে, সুনীল মন্ডলকে ইতিমধ্যে বিধানসভায় প্রার্থী করা হয়েছে।

thebengalpost.in
অমিত শাহের সভায় শিশির অধিকারী :

তবে, শিশির অধিকারী’কে রাজ্যপাল করার জল্পনা অনেক আগে থেকেই শুরু হয়েছিল। এমনও ঠিক ছিল যে, আগামী অগস্টে পূর্বাঞ্চলের একটি রাজ্যের রাজ্যপালের মেয়াদ শেষ হলে শিশিরকে সেখানেই রাজ্যপাল করে পাঠানো হবে। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত বিজেপি’র এক কেন্দ্রীয় নেতার বক্তব্য অনুযায়ী, “ওনার বয়স হয়েছে। এই অবস্থায় ওনাকে আর কোনও রাজনৈতিক বিড়ম্বনায় পড়তে হোক, সেটা আমরা চাই না। এমন প্রবীণ এবং অভিজ্ঞ রাজনীতিক যে রাজ্যের রাজ্যপাল হবেন, সেই রাজ্যই তাঁর প্রজ্ঞা থেকে লাভবান হবে। আমরা সেই পথেই এগোচ্ছি।” বিজেপি’র এই ভাবনার মধ্য দিয়ে একদিকে যেমন শিশির’কে সম্মানজনক পুনর্বাসন দেওয়ার বার্তা আছে, ঠিক তেমনই কাঁথি আসনে তাঁর ছোট ছেলে সৌমেন্দু অধিকারী’কে প্রার্থী করে ওই আসনটিও নিজেদের দখলে রাখার কৌশল আছে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। এক্ষেত্রে, শুভেন্দু অধিকারী’র ছোট ভাই সৌমেন্দু’কেও পুনর্বাসন দেওয়া হবে আর অধিকারী গড়ে নিজেদের প্রভাবও বজায় থাকবে বলে মনে করছে বিজেপি’র শীর্ষ নেতৃত্বও। তবে, আনুষ্ঠানিক ঘোষণার আগে সবটাই যে এখনও জল্পনার পর্যায়েই আছে, তা নিয়ে বিতর্ক নেই।

আরও পড়ুন -   পূর্ব মেদিনীপুর জেলা তৃণমূল সভাপতির পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হল শিশির অধিকারীকে, সৌমেন কুমার মহাপাত্র নতুন জেলা সভাপতি