মহামারীতে মহানুভবতা! বিনামূল্যে শববাহী গাড়ি মেদিনীপুরে, থ্যালাসেমিয়া আক্রান্তের রক্তের দায়িত্ব নিল শালবনীর সংস্থা

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পশ্চিম মেদিনীপুর, ১২ মে: করোনার বেলাগাম সংক্রমণে জর্জরিত রাজ্য তথা দেশ। মহামারীর এই আবহে মানুষের পাশে দাঁড়াতে নিজে থেকে এগিয়ে আসছেন অনেকেই। সেইরকমই চিত্র দেখা গেল মেদিনীপুরেও! স্বর্গীয় শক্তি প্রসাদ দত্তের স্মৃতির উদ্দেশ্যে মেদিনীপুরের ২১ নম্বর ওয়ার্ড উন্নয়ন সমিতির উদ্যোগে, গতকাল শুরু হল বিনা মূল্যে শববাহী গাড়ীর পরিষেবা। ২১ নম্বর উন্নয়ন সমিতির এটা দ্বিতীয় উদ্যোগ। এর আগে ওই সমিতির উদ্যোগে অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবা চালু হয়েছিল ৭ বছর আগে। এখনও এই পরিষেবা চলছে। তারই সঙ্গে যুক্ত হল এই শববাহী গাড়ির পরিষেবা। এই পরিষেবার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন ডাঃ কাঞ্চন ধাড়া। গতকালকের এই অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন স্বর্গীয় শক্তি প্রসাদ দত্তের ভাই ভক্তি প্রসাদ দত্ত। পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন, বিশিষ্ট আইনজীবী রজত সেন, উত্তম রায়, তনু প্রকাশ দত্ত (ঝুনু দত্ত), সমর শীল, মজিদ খান, সুখময় সেনগুপ্ত, অসীম বর্মন, পূর্ণেন্দু শেখর কালী, সুমন চাটার্জী, ডাক্তার সন্ধ্যা ধাড়া ও এলাকার বিশিষ্টজনেরা।

thebengalpost.in
বিনামূল্যে শববাহী শকট পরিষেবা :

এদিকে, এক থ্যালাসেমিয়া আক্রান্ত শিশুর সারাজীবনের রক্তের দায়িত্ব নিল শালবনীর ফেসবুক গ্রুপ বা সংস্থা “ছত্রছায়া”। চন্দ্রকোনা টাউনের কুঁয়াপুরের লখিটপাট গ্রামের বাসিন্দা সুভাষ ধাওয়ার সন্তান কৃশান, থ্যালাসেমিয়া আক্রান্ত হওয়ায় প্রতি কুড়ি দিন অন্তর এক ইউনিট করে রক্ত লাগে কৃশানের। গতকাল ওই শিশুটির জন্য ব্লাড ব্যাঙ্কে গিয়ে রক্ত দেন ছত্রছায়া গ্রুপের একজন শুভাকাঙ্ক্ষী সৌমেন ঘোষ। পাশাপাশি, আরও পাঁচজন রক্তদাতা এগিয়ে এসেছেন ওই শিশুটিকে রক্ত দেওয়ার জন্য। এমনকি, তাঁরা, কৃশানের সারা জীবনের জন্য রক্তের যোগান দেবেন বলে জানিয়েছেন ছত্রছায়ার কর্ণধার নতুন ঘোষ।

thebengalpost.in
সৌমেনের সঙ্গে কৃষাণ :

আরও পড়ুন -   ফের মেদিনীপুর শহরের করোনা 'নেগেটিভ' পরিবারের প্রতি দুর্ব্যবহারের অভিযোগ উঠল