ভোট-চতুর্থীর সকালেই দুর্ঘটনা! প্রথম বার ভোট দিতে এসে ভোটের লাইনে গুলিতে নিহত ১৮ বছরের যুবক

thebengalpost.in
মৃত্যু হল যুবকের:

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, কুচবিহার, ১০ এপ্রিল:ভোট চতুর্থীর সাতসকালেই দুর্ঘটনা! দুষ্কৃতীদের গুলিতে মৃত্যু হল প্রথমবার ভোট দিতে আসা ১৮ বছরের তরতাজা যুবকের। যুবকের নাম আনন্দ বর্মন। বিজেপি ও তৃণমূল উভয় পক্ষের দাবি, নিহত আনন্দ তাদের দলের সমর্থক। তবে, পরিবারের পক্ষ থেকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে- আনন্দ বিজেপি কর্মী ছিল, তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের ছোঁড়া গুলিতে মৃত্যু হয়েছে তার! কোচবিহারের শীতলকুচির পাগলাপীরে এই ঘটনা ঘটেছে। ভোটের লাইনেই গুলি চলার অভিযোগ উঠেছে৷ তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে রণক্ষেত্রের চেহারা নিয়েছে শীতলকুচি। পরিস্থিতি সামাল দিতে এলাকায় ব়্যাফ নামানো হয়েছে। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে, নির্বাচন কমিশনের শীর্ষস্থানীয় আধিকারিকেরা।

thebengalpost.in
মৃত্যু হল যুবকের:

সূত্রের খবর অনুযায়ী, শনিবার সকাল থেকেই কোচবিহারের শীতলকুচি অশান্ত হয়েছিল৷ শীতলকুচির জোড়া পাটকিতে ভোটারদের ভোটদানে বাধা দেওয়া হয় বলেও অভিযোগ। ২৬৫ নম্বর বুথে বিজেপির পোলিং এজেন্টকে ভোটদানে বাধা দেওয়া হয় বলে জানা গিয়েছে। পাশাপাশি শীতলকুচির পাগলাপীরে এই গুলি চলার ঘটনা ঘটল। জানা গেছে, লাইনে দাঁড়ানো ১৮ বছরের যুবক আনন্দ’কে একদল দুষ্কৃতী এসে হুমকি দেয়। সেই সময় লাইন ছেড়ে পালাতে গিয়ে, পেছন থেকে দুষ্কৃতীদের ছোঁড়া গুলিতে ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়ে আনন্দ। তার পিঠে গুলি লাগে। তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত ঘোষণা করা হয়! তৃণমূল প্রার্থী তথা মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ অভিযোগ করেছেন, “বিজেপি দুষ্কৃতীদের গুলিতে ওই যুবকের মৃত্যু হয়েছে।” অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে যুবকের পরিবারের অভিযোগ, “আনন্দ বিজেপিকে সমর্থন করত। সেজন্যই তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা তাকে গুলি করে হত্যা করেছে।” ঘটনাস্থলে চরম উত্তেজনা রয়েছে। পুলিশ ও নির্বাচন কমিশনের আধিকারিকরা এলাকার দখল নিয়েছে। প্রসঙ্গত, এই শীতলকুচিতেই বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের উপর হামলা করা হয়েছিল!

thebengalpost.in
ঘটনাস্থলে উত্তেজনা:

এদিকে, আজ (১০ এপ্রিল) রাজ্যের ৫ জেলায় মোট ৪৪ আসনে ভোট। উত্তরবঙ্গের দুই জেলা আলিপুরদুয়ার ও কোচবিহারে যথাক্রমে ৫ ও ৯ আসনে ভোট। দক্ষিণবঙ্গের তিন জেলা হাওড়া, হুগলি ও দক্ষিণ ২৪ পরগণায় যথাক্রমে ৯, ১০ ও ১১ আসনে ভোট। দেখে নিন কোন কোন আসনে আজ ভোট হচ্ছে :
কোচবিহার (৯)– মেখলিগঞ্জ, মাথাভাঙা, কোচবিহার উত্তর, কোচবিহার দক্ষিণ, শীতলকুচি, সিতাই, দিনহাটা, নাটাবাড়ি, তুফানগঞ্জ।
আলিপুরদুয়ার(৫)- কুমারগ্রাম, কালচিনি, আলিপুরদুয়ার, ফালাকাটা, মাদারিহাট।
দক্ষিণ ২৪ পরগণা (১১)- সোনারপুর দক্ষিণ, ভাঙড়, কসবা, যাদবপুর, সোনারপুর উত্তর, টালিগঞ্জ, বেহালা পূর্ব, বেহালা পশ্চিম, মহেশতলা, বজবজ, মেটিয়াব্রুজ।
হাওড়া (৯)- উত্তর হাওড়া, বালি, মধ্য হাওড়া, দক্ষিণ হাওড়া, শিবপুর, পাঁচলা, সাঁকরাইল, ডোমজুড়, উলুবেড়িয়া পূর্ব।
হুগলি (১০)- উত্তরপাড়া, শ্রীরামপুর, চাঁপদানি, সিঙ্গুর, চন্দননগর, চুঁচুড়া, বলাগড়, পান্ডুয়া, সপ্তগ্রাম, চণ্ডীতলা।

আরও পড়ুন -   "SP - IC কেও ফাঁসাতে হবে", শীতলকুচি কান্ডে মমতার সঙ্গে তৃণমূল প্রার্থীর কথোপকথন 'ভাইরাল'! CID রিপোর্ট চাইল হাইকোর্ট, CBI চেয়ে মামলা অধীরের