জলের তলায় দীঘা-মন্দারমণি! মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরলেন জনপ্রিয় সাংবাদিক ও গাড়ির চালক, ভেসে গেল গাড়ি, ভাঙন ৫১ টি বাঁধে, উদ্ধার ৫০ জন

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পূর্ব মেদিনীপুর, ২৬ মে: কার্যত জলের তলায় গোটা দীঘা-মন্দারমণি! মুড়ি-মুড়কির মতো ভেসে যাচ্ছে গাড়িগুলি। একের পর এক বাঁধ ভেঙে জলের তলায় গ্রামগুলি। স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী বললেন, “পূর্ব মেদিনীপুরের ৫১ টি বাঁধ ভেঙেছে। ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে ৭০ কিলোমিটার এলাকা। সেনা, এনডিআরএফ, পুলিশ একযোগে কাজ করছে।” এখনও পর্যন্ত ৫০ জনের বেশি মানুষকে মৃত্যুর মুখ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

thebengalpost.in
দীঘার সমুদ্রের ঢেউ :

এদিকে, কলকাতা টিভির সাংবাদিক সুচন্দ্রিমা সাক্ষাৎ মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এলেন! তাঁর গাড়ির চালককেও উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। তবে, ভেসে গেছে তাঁদের গাড়ি। সহ সাংবাদিকদের প্রচেষ্টায় মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এসে কাঁদতে কাঁদতে সুচন্দ্রিমা জানিয়েছেন, “আজ মৃত্যুকে এত সামনে থেকে দেখলাম! আমি আমার জীবনে দীঘায় এমন‌ বিপর্যয় দেখিনি। আমার চালককেও উদ্ধার করেছেন অন্যান্য হাউসের সাংবাদিকরা। রক্ষা করতে পারলামনা আমাদের গাড়ি সহ প্রয়োজনীয় অনেক জিনিসপত্র।” মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, “যশের সঙ্গে ভরা কোটালের কারণেই এমন‌ বিপর্যয়।” রাজ্যে এখনও পর্যন্ত ২০,০০০ বাড়ি ধ্বংস হয়েছে এবং প্রায় ৯ লক্ষ মানুষকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।‌‌সবথেকে ক্ষতিগ্রস্ত জেলা দীঘা, মান্দারমণি সহ পূর্ব মেদিনীপুর এবং সুন্দরবন, নামখানা, ফ্রেজারগঞ্জ সহ দক্ষিণ ২৪ পরগণা।

thebengalpost.in
কোনোক্রমে প্রাণে বাঁচলেন সুচন্দ্রিমা (ছবি: ফেসবুক লাইভ) :

আরও পড়ুন -   মেদিনীপুরের মুকুটহীন সম্রাট 'দেশপ্রাণ' বীরেন্দ্র শাসমল : ১৪০ তম জন্মদিনে শ্রদ্ধাঞ্জলি