ফের অসৎ উদ্দেশ্যে শালবনীর জঙ্গলে আগুন! অক্লান্ত প্রচেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে আনলেন গ্রামবাসীরা

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পশ্চিম মেদিনীপুর, ১৯ মার্চ: বসন্তের ভরা মরসুমে দগ্ধ হচ্ছে প্রকৃতি! একের পর এক জঙ্গলে অবলীলায় আগুন লাগিয়ে দিয়ে, সবুজ-সজীব প্রকৃতির নিধন ঘটাচ্ছেন পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ জীব ‘মান-হুঁশ’! বেহুঁশ হয়ে পৈশাচিক উল্লাসে মেতে উঠছেন। আর, জীববৈচিত্র্য বা বাস্তুতন্ত্রকে ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিচ্ছেন। কোনোভাবেই এই নারকীয় প্রবৃত্তি থেকে তাকে নিরস্ত করা যাচ্ছেনা! বোঝানো যাচ্ছে না, সর্বংসহা প্রকৃতি মুখ বুঝে সহ্য করছে ঠিকই, বৃহত্তর মানবসমাজ অচিরেই গভীর এক অন্ধকার ডুব দিচ্ছে। পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার শালবনী ব্লকের পিড়রালোহা’র জঙ্গলে, মাত্র দু’দিনের ব্যবধানে একই ভাবে, একই সময়ে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার মধ্য দিয়ে সেই অজ্ঞ, অর্বাচীন, অমানবিক মানব-চরিত্রই পরিস্ফুট হচ্ছে যেন! বনদপ্তর থেকে সচেতন গ্রামবাসীরা সকলেই একপ্রকার অসহায়!

thebengalpost.in
পিড়রালোহার জঙ্গলে আগুন :

thebengalpost.in
ঘটনাস্থলে দমকল বাহিনী :

মঙ্গলবার (১৬ মার্চ) বিকেলেও জ্বলেছিল আড়াবাড়ি রেঞ্জের অধীন মিরগা বিটের অন্তর্গত পিড়রালোহার জঙ্গল। আজ (১৯ মার্চ) দুপুর থেকেও জ্বলল! কেউ বা কারা অসৎ উদ্দেশ্যে, ভরদুপুরে আগুন লাগিয়ে দিয়ে চলে যায়। বেলা ৩ টা – সাড়ে ৩ টা নাগাদ গ্রামবাসীরা দেখতে পান জঙ্গল দাউদাউ করে জ্বলছে! গ্রামের আবালবৃদ্ধবনিতা ছুটে গিয়ে, বালতি বালতি জল ঢেলে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করেন। বনদপ্তরের সহযোগিতায় দমকলেও খবর দেওয়া হয়। দমকল আসার আগেই অবশ্য, ঘণ্টাখানেকের প্রচেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসেন গ্রামবাসীরা। দমকল বাহিনী এসে অবশিষ্ট কাজ করে। কিন্তু, কেন পরপর এইভাবে এই জঙ্গলে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হচ্ছে? গ্রামবাসী ও বনদপ্তরের সাথে কথা বলে জানা গেল, এই জঙ্গলে মূলত কাজুবাদামের গাছ আছে। আজকেই তার ‘ডাক’ (ব্যবসায়িক চুক্তি) হওয়ার কথা আছে। তার আগে সম্পূর্ণ অসৎ উদ্দেশ্যে বা স্বার্থান্বেষী মনোভাব থেকেই, এই কাজু বাদামের জঙ্গল ধ্বংস করে দেওয়ার ঘৃণ্য চক্রান্ত করছে কেউ বা কারা!

thebengalpost.in
গ্রামবাসীদের প্রচেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে আসে আগুন :

thebengalpost.in
বিজ্ঞাপন (Advertisement) :

আরও পড়ুন -   তৃণমূলের জমি ফেরত দিলেন সৌরভ, রাজনৈতিক মহলে শুরু গুঞ্জন