করোনা আক্রান্ত হয়ে চালকের মৃত্যু, সংক্রমিত মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ

driver died and corona infected principal of midnapore medical college and hospital

মণিরাজ ঘোষ, মেদিনীপুর, ৯ সেপ্টেম্বর: মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের অধ্যক্ষ ডাঃ পঞ্চানন কুন্ডু’র গাড়ির চালক ছিলেন কার্তিক চন্দ্র পটেল (৫২)। মেদিনীপুর শহরের হোমিওপ্যাথি মেডিক্যাল কলেজ রোডে তার বাড়ি। সোমবার রাতে হঠাৎ করে তার প্রবল শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। পরিবারের সদস্যরা, মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করলে, কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই তার মৃত্যু হয়। মঙ্গলবার তার করোনা পরীক্ষা করা হয় এবং রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এরপরই মঙ্গলবার মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ নিজের করোনা পরীক্ষা করানোর সিদ্ধান্ত নেন। তাঁর রিপোর্টও পজিটিভ আসে। তবে তাঁর বিশেষ উপসর্গ নেই বলে জানা গেছে।

thebengalpost.in
মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল :

উল্লেখ্য যে, গত রবিবার (৬ সেপ্টেম্বর) থেকেই বাঁকুড়া’তে নিজের বাড়িতে আছেন, ডাঃ পঞ্চানন কুন্ডু। সোমবার লকডাউনের দিন রাতে তিনি এই খবর পান। মঙ্গলবার বাঁকুড়াতেই তিনি করোনা পরীক্ষা করানোর সিদ্ধান্ত নেন। রাতে সেই রিপোর্ট পজিটিভ আসে। তিনি নিজের বাড়িতেই আইশোলেশনে আছেন এবং ভালো আছেন বলে জানিয়েছেন। গত কয়েকদিনে তাঁর প্রত্যক্ষ সংস্পর্শে যাঁরা এসেছিলেন, তাঁদেরও করোনা পরীক্ষা হবে বলে জানা গেছে। উল্লেখ্য যে, সম্প্রতি জেলার প্রাক্তন মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক (বর্তমানে, আলিপুরদুয়ারের মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক) ডাঃ গিরিশ চন্দ্র বেরা’ও মেদিনীপুরে এসে করোনা সংক্রমিত (২২ আগস্ট) হয়েছিলেন। তবে, গত ২৯ আগস্ট তাঁর রিপোর্ট নেগেটিভ আসে এবং গতকালই তিনি আলিপুরদুয়ারে পৌঁছে ফের নিজের কাজে যোগদান করেছেন বলে জানা গেছে।

আরও পড়ুন -   "যে দল ভাঙানোর খেলা আপনি বাংলায় শুরু করেছিলেন, সেই খেলাতেই তৃণমূল পার্টি খতম হবে, মিলিয়ে নেবেন দিদি", চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন অধীর চৌধুরী