রাজ্যের মধ্যে প্রথম! খড়্গপুর নিষিদ্ধ পল্লীর বাসিন্দাদের ‘দুয়ারে’ গিয়ে করোনা টিকা দিল প্রশাসন, দেওয়া হবে ঘাটালেও

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পশ্চিম মেদিনীপুর, ৩১ মে: রাজ্যের মধ্যে প্রথম। এককথায় নজিরবিহীনও! ‘দুয়ারে’ গিয়ে ভ্যাকসিন দেওয়া হল- নিষিদ্ধ পল্লীর (যৌনপল্লীর) বাসিন্দাদের। পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার খড়্গপুরের কৌশল্যা যৌনপল্লীর ৪০ জন বাসিন্দাকে সোমবার করোনা টিকার প্রথম ডোজ দেওয়া হল জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে। আজ সকালে রীতিমতো যৌনকর্মীদের উঠোনে বা দুয়ারে পৌঁছে যান প্রশাসনের আধিকারিকরা। দেওয়া হয়েছে, করোনা ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ। উপস্থিত ছিলেন স্বয়ং মহকুমাশাসক আজমল হোসেন, খড়্গপুর মহকুমা হাসপাতালের সুপার কৃষ্ণেন্দু মুখোপাধ্যায় সহ স্বাস্থ্য দপ্তরের কর্মীরা। মহকুমাশাসক জানিয়েছেন, “জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে যে বিশেষ করোনা ভ্যাকসিনেশন ড্রাইভ বা কর্মসূচি চলছে, সেই তালিকায় নিষিদ্ধ পল্লীর বাসিন্দাদেরও রাখা হয়েছিল। সেই মতো আজকে তা প্রদান করা হল। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকেই দুয়ারে গিয়ে ভ্যাকসিন দেওয়ার আবেদন করা হয়েছিল। কিন্তু, সেই আবেদন আমরা মঞ্জুর করতে পারিনি বিভিন্ন কারণে! তবে, ওনাদের ক্ষেত্রে কোনো আবেদন না করা হলেও, প্রশাসনের তরফে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সমাজের বঞ্চিত অংশের প্রতিনিধি হিসেবে তাঁদের প্রতি সহমর্মিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।”

thebengalpost.in
খড়্গপুরের কৌশল্যা যৌনপল্লীতে টিকাকরণ :

এদিকে, করোনা টিকা নিয়ে আপ্লুত নিষিদ্ধ পল্লীর বাসিন্দারা। সমাজের ‘অন্ধকার’ অংশে থেকেও,‌ সরকার বা প্রশাসনের তরফে তাঁদের উদ্দেশ্য যেভাবে মানবতার হাত বাড়িয়ে দেওয়া হল, তাতে অন্তত একদিনের জন্য হলেও নিজেদের ‘আলোকিত’ মনে করলেন প্রমীলা, স্বপ্না, সুন্দরী (নাম পরিবর্তিত)’রা! স্বভাবতই চোখে আনন্দের অশ্রু নিয়ে তাঁরা একরাশ ধন্যবাদ জ্ঞাপন করলেন প্রশাসনের উদ্দেশ্যে। প্রশাসনের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, “খড়্গপুর ছাড়াও ঘাটালের ২৫ জন সেক্স ওয়ার্কার বা যৌন কর্মীকেও করোনা টিকা দেওয়া হবে।”

আরও পড়ুন -   অনলাইন ক্লাসে "অশালীন" ভাষায় পড়ুয়াদের আক্রমণ আইআইটি খড়্গপুরের (IIT KHARAGPUR) অধ্যাপিকার, দেশজুড়ে নিন্দার ঝড়