কপালে ‘চিন্তার ভাঁজ’ ফেলে মেদিনীপুর শহরেই ৪ জন করোনা সংক্রমিত, ফের খোলা হচ্ছে ‘কন্ট্রোল রুম’, ভ্যাকসিনেশনে রেকর্ড পশ্চিম মেদিনীপুরের

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পশ্চিম মেদিনীপুর, ২৩ মার্চ:‘করোনা’ ফের জেলা প্রশাসন ও জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলছে! গত ১৯ শে মার্চ পশ্চিম মেদিনীপুরের দায়িত্বে আসা একজন নির্বাচনী পর্যবেক্ষকের রিপোর্ট পজিটিভ আসার পর থেকেই কিছুটা নড়েচড়ে বসেছে জেলা প্রশাসন। এর মধ্যেই, গতকাল সন্ধ্যায় (২২ শে মার্চ) আসা জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের রিপোর্টে একসাথে ৪ জনের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। আশঙ্কার যে, প্রত্যেকেই মেদিনীপুর পৌরসভার বাসিন্দা! এনিয়ে জেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য দপ্তরের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করা হচ্ছে বলে জানা গেছে। আবার সেই আগের মতো, বাড়িতে পৌঁছে যাবেন স্বাস্থ্যকর্মী তথা আশাকর্মীরা। সংস্পর্শে আসা আন্যান্য সদস্যদের নিভৃতবাসে থাকা এবং টেস্ট করানোর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করা হবে। জেলার উপ মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডাঃ সৌম্যশঙ্কর সারেঙ্গী জানিয়েছেন, “সংক্রমিতদের সংস্পর্শে আসা প্রত্যেকের করোনা পরীক্ষা করা হবে। প্রয়োজনীয় সমস্ত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। পুনরায়, জেলা প্রশাসনের কন্ট্রোল রুম খোলা হচ্ছে। আতঙ্কিত হওয়ার মতো পরিস্থিতি না হলেও, আমরা সতর্ক থাকছি। জেলাবাসীর কাছে আবেদন, সতর্ক থাকুন, মাস্ক ব্যবহার করুন ও দূরত্ব বজায় রাখুন।” তবে, স্বাস্থ্য আধিকারিকরা যাই বলুন না কেন, নির্বাচনের প্রাক্কালে একের পর এক মিটিং, মিছিল, রোড শো এর দাপটে ‘করোনা মহারাজ’ ও যে নিজের দাপট অব্যাহত রাখবে, তা বলাই বাহুল্য! কারণ, একমাত্র এই দেশ এবং এই রাজ্যেই জীবনের সঙ্গে ‘রাজনীতি’ এতখানি সম্পৃক্ত!

thebengalpost.in
PPE কিট পরিহিত শালবনী করোনা হাসপাতালের চিকিৎসক তথা BMOH ডাঃ নবকুমার দাস :

অন্যদিকে, করোনা ভ্যাকসিনেশনের ক্ষেত্রে নতুন রেকর্ড করেছে পশ্চিম মেদিনীপুর। সোমবার, ২৩ শে মার্চ একদিনে করোনা ভ্যাকসিন (Covishield এবং Covaxin) দেওয়া হয়েছে প্রায় ২১,৫০০ জনকে। যা এখনও পর্যন্ত সর্বাধিক! ডাঃ সারেঙ্গী জানিয়েছেন, জেলার মোট ২৬০ টি কেন্দ্রে (সেশন সাইটে) চলছে ভ্যাকসিনেশন কর্মসূচি। গতকাল, এই কেন্দ্রগুলি থেকেই ষাটোর্ধ্ব, ৪৫ উর্ধ্ব কো-মর্বিডিটি যুক্ত এবং প্রথম সারির করোনা যোদ্ধা সহ প্রায় ২১,৫০০ জনকে ভ্যাকসিন প্রদান করা হয়েছে। ভ্যাকসিনেশনে এই উৎসাহ বা রেকর্ড নিঃসন্দেহে আশাব্যঞ্জক এবং অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে জানিয়েছেন জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডাঃ নিমাই চন্দ্র মন্ডলও। প্রসঙ্গত, গতকাল সারা দেশেও ভ্যাকসিনেশনে নতুন রেকর্ড হয়েছে। প্রায় ৩৩ লক্ষ মানুষ গতকাল ভ্যাকসিন নিয়েছেন। এখনও পর্যন্ত দেশের প্রায় ৪ কোটি ৮৫ লক্ষ মানুষের টিকাকরণ বা ভ্যাকসিনেশন সম্পন্ন হয়েছে সারা দেশে। অপরদিকে, গতকাল রাজ্যে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৩৬৮ জন এবং দেশে প্রায় ৪১,০০০ জন।

thebengalpost.in
বিজ্ঞাপন (Advertisement) :

আরও পড়ুন -   ফের কেশপুর ব্লকের পরিযায়ী যুবক করোনা আক্রান্ত হলেন, ঘাটালে আক্রান্ত মধ্যবয়স্ক হৃদরোগী