সংক্রমণের নতুন রেকর্ড করে মেদিনীপুর-খড়্গপুর-ডেবরা-শালবনী সহ পশ্চিম মেদিনীপুরে ৩৮ জন আক্রান্ত, সব ভুলে ‘রামনবমী’তে মন শহরবাসীর

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পশ্চিম মেদিনীপুর, ১১ এপ্রিল:এ যেন রেকর্ড ভাঙার খেলায় মেতেছে নোভেল করোনা ভাইরাস (কোভিড ১৯)! গত চব্বিশ ঘণ্টায় দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দেড় লক্ষ (১,৫২,৮৭৯) ছাড়িয়ে গেছে। মৃত্যু ৮৩৯ জনের। অপরদিকে, রাজ্যেও নতুন রেকর্ড! গত ৬ মাস পর (অক্টোবর, ২০২০) ফের রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা চার হাজার ছাড়িয়ে গেছে। গতকাল (১০ এপ্রিল) সন্ধ্যার বুলেটিন অনুযায়ী, রাজ্যে গত চব্বিশ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৪০৪৩ জন। মৃত্যু হয়েছে ১২ জনের। কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগণার লাগামছাড়া সংক্রমণ-পরিস্থিতির সাথে সাথে রাজ্যের প্রতিটি জেলাতেই করোনা সংক্রমণ ক্রমেই ভয়াবহ হয়ে উঠছে। তবে, সংক্রমণ’কে এখন থোড়াই কেয়ার করে রাজ্যবাসী আগামী নববর্ষ আর রামনবমী’তে মেতে ওঠার প্রস্তুতি নিচ্ছে! সঙ্গে নির্বাচন উপলক্ষে চলছে প্রচার-উৎসব।

thebengalpost.in
দেশের সংক্রমণ চিত্র:

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে প্রাপ্ত রবিবার সকালের রিপোর্ট অনুযায়ী, গত চব্বিশ ঘণ্টায় জেলায় করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩৮ জন। মৃত্যু’র খবর নেই। মেদিনীপুরে ১১ জন, খড়্গপুরে ১৪ জন (রেল, আইআইটি সহ), ডেবরাতে ৪ (হাইপাথ ৩, লোয়াদা ১) জন, শালবনীতে ২ (CRPF ক্যাম্প ও চকতারিনী) জন, গড়বেতায় ১ জন, ক্ষীরপাই ১ জন, দাঁতনে ১ জন সহ মোট ৩৮ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে গত চব্বিশ ঘণ্টায়। এদিকে, গত এক সপ্তাহে জেলায় করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ১৯৬ (২২, ৩৫, ১১, ৩০, ৪২, ১৮, ৩৮) জন। আর, সংক্রমণ বাড়ার সথে সাথেই জেলায় ভ্যাকসিন নেওয়ার প্রতি মানুষের আগ্রহ বা চাহিদাও বাড়ছে! শনিবার জেলায় মোট করোনা ভ্যাকসিন নিয়েছেন ১৫৭৫৮ জন (Covishield 13658, Covaxin 2100)। জেলার উপ মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডাঃ সৌম্যশঙ্কর সারেঙ্গী জানিয়েছেন, “ভ্যাকসিনের প্রতি মানুষের উৎসাহ বাড়ছে। চাহিদা অনুযায়ী ভ্যাকসিন পাঠানোর কথা উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।” তবে, শুধু ভ্যাকসিন নয়, সাধারণ মানুষকে অবিলম্বে সতর্ক থাকার বার্তাও দেওয়া হচ্ছে জেলা প্রশাসন তথা জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের পক্ষ থেকে। কিন্তু, আপাতত এসব সতর্কবার্তা উপেক্ষা করেই, চড়ক-গাজন আর রামনবমী’তে মেতে ওঠার প্রস্তুতি নিচ্ছে শহরবাসী!

thebengalpost.in
রাজ্যের সংক্রমণ চিত্র :

সূত্রের খবর অনুযায়ী, ‘রামনবমী’ (২১ এপ্রিল) উপলক্ষে একাধিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে মেদিনীপুর শহরে। বাইক মিছিল থেকে শুরু করে শোভাযাত্রা সব কিছুই হবে! রামনবমীর আগের দিন অর্থাৎ ২০ এপ্রিল শহরের জর্জকোর্টের কাছের টিভি টাওয়ারের মাঠ থেকে বাইক মিছিল শুরু হবে বলে উদ্যোক্তাদের পক্ষ থেকে জানিয়েছেন শঙ্কর গুছাইত। তিনি জেলা বিজেপি’র সাধারণ সম্পাদকও। শঙ্কর গুছাইতের কথায়, “অতিমারীর কারণে, গত বছর অনুষ্ঠান করা সম্ভব হয়নি। এ বার নানা কর্মসূচি রয়েছে। কেরানিটোলা এলাকায় পুজোর আয়োজন করা হচ্ছে। ওই দিন প্রসাদ বিতরণ করা হবে। ২৩ এপ্রিল একটি শোভাযাত্রা বার হবে। শহরের রিং রোড এলাকায় ঘুরবে ওই শোভাযাত্রা।” মিছিলে প্রায় ১০ হাজার বাইক থাকবে বলে জানিয়েছেন শঙ্কর। তাঁর দাবি, “সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে রাজ্য বিজেপি’র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এবং জেলা নেতৃত্বও হাজির থাকবেন।” যদিও রামনবমীর এই কর্মসূচিকে কটাক্ষ করেছেন তৃণমূলের জেলা সভাপতি অজিত মাইতি। তিনি বলেন, “রাম সকলের দেবতা! আমরা ভক্তি করি। আর ওরা ভড়ং করে। এটা ওদের লোক দেখানো কর্মসূচি।” যদিও, একসময় (২০১৯) শাসকদলের পক্ষ থেকেও মিছিল করা হয়েছিল! সে যাই হোক, সংক্রমণকে উপেক্ষা করেই আপাতত শহরবাসী উৎসবে মেতে উঠতে চলেছে, এটাই বড় কথা! সব শুনে জেলার এক স্বাস্থ্য কর্তা বললেন, “নো কমেন্টস (No Comments)!”

thebengalpost.in
রামনবমীর প্রস্তুতি :

আরও পড়ুন -   খড়্গপুরে ৮০, মেদিনীপুরে ২৭ ছাড়াও শালবনী, ডেবরা, গড়বেতা, সবং, বেলদা সহ গত ৪৮ ঘণ্টায় পশ্চিম মেদিনীপুরে ৩২৪ জন করোনা সংক্রমিত