একধাক্কায় পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার দৈনিক সংক্রমণ কমে ১৭৬! “পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসছে” জানালেন স্বাস্থ্যকর্তা

thebengalpost.in
জেলা প্রশাসন তথা জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর তৎপর :

মণিরাজ ঘোষ, পশ্চিম মেদিনীপুর, ২৮ মে: অবশেষে জেলাতেও নামল করোনা গ্রাফ! গত চব্বিশ ঘণ্টায় পশ্চিম মেদিনীপুরে করোনা সংক্রমিত হয়েছেন মাত্র ১৭৬ জন। বৃহস্পতিবার জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে প্রাপ্ত রিপোর্ট অনুযায়ী, আরটিপিসিআর টেস্টে ৯৯ জন, র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টে ৪৫ জন এবং ট্রুন্যাট অনুযায়ী ৩২ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। যদিও, প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে অন্যান্য দিনের তুলনায় টেস্ট সামান্য কম হয়েছে, তা সত্ত্বেও সংক্রমণের হার যে বেশ অনেকটাই কমেছে, মানছেন জেলা স্বাস্থ্য কর্তারা। জেলার উপ মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডাঃ সৌম্যশঙ্কর সারেঙ্গী জানিয়েছেন, “গত সপ্তাহে যেখানে পজিটিভিটি রেট ৩০ শতাংশের আশেপাশে ছিল, চলতি সপ্তাহে তা ২০ শতাংশের আশেপাশে নেমে এসেছে। লকডাউনের ফলে, পরিস্থিতি অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে এসেছে।” তিনি এও জানিয়েছেন, জেলায় এই মুহূর্তে পর্যাপ্ত পরিমাণে করোনা শয্যা আছে। জেলায় মিউকরমাইকোসিস (Mucormycosis) বা ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের উপসর্গও পাওয়া যায়নি বলে তিনি জানিয়েছেন। গত চব্বিশ ঘণ্টায় জেলার করোনা হাসপাতাল গুলি থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২৫ জন এবং গত চব্বিশ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৪ জনের (শালবনী ২, ঘাটাল ২)। গত ৭ দিনে জেলায় মোট করোনা সংক্রমিত হলেন- ৩২৩২ (৫৬১, ৫২০, ৫০২, ৫০৫, ৩৯০, ৫৭৭, ১৭৬) জন।

thebengalpost.in
লকডাউনের ফলে জেলার করোনা পরিস্থিতি অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে :

গত চব্বিশ ঘণ্টায় মেদিনীপুর শহর ও শহর সংলগ্ন এলাকায় করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৪৭ জন। এর মধ্যে, মেদিনীপুর সদর ব্লকে মোট ১২ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন গত চব্বিশ ঘণ্টায়। চাঁদড়ায় ৭, বিরবিরায় ২, টিকারপাড়ায় ২ এবং নরমপুরে ১ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। অপরদিকে, মেদিনীপুর শহরে গত চব্বিশ ঘণ্টায় মাত্র ৩৫ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে (যদিও, ‘যশ’ দুর্যোগের কারণে ২৫ ও ২৫ শে মে টেস্ট তুলনামূলক কম হয়েছে বলে জানা গেছে)। শহর মেদিনীপুরের এই ৩৫ জনের মধ্যে সর্বাধিক করোনা আক্রান্ত বার্জটাউনে- ৫ জন। বাকিরা হলেন- মির্জাবাজারে ১ জন, পানপাড়ায় ১ জন, অরবিন্দ নগরে ১ জন, পুলিশ লাইনে ১ জন, তাঁতিগেড়িয়ায় ৩ জন, লাইব্রেরী রোডে ১ জন, কামারআড়ায় ১ জন, বরিশাল কলোনীতে ১ জন, শরৎপল্লী’তে ১ জন, বিধাননগরে ১ জন, রাঙামাটিতে ১ জন, কেরানীটোলায় ৩ জন, মিত্র কম্পাউন্ডে ২ জন, বল্লভপুরে ৩ জন, সুজাগঞ্জে ২ জন, ধর্মায় ২ জন, নজরগঞ্জে ৩ জন এবং পাটনা বাজারে ২ জন। এদিকে, গত চব্বিশ ঘন্টায় শালবনীতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১২। এর মধ্যে- শালবনী এলাকায় ১০ জন, ভীমপুরে ১ জন এবং সৈয়দপুরে ১ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন গত চব্বিশ ঘণ্টায়।

thebengalpost.in
জেলা প্রশাসন তথা জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর তৎপর :

রেলশহর খড়্গপুর ও সংলগ্ন এলাকায় গত চব্বিশ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমিত হয়েছেন মাত্র ২৫ জন। এর মধ্যে- খড়্গপুর গ্রামীণে ৩ (মাদপুরে ২, ধারেন্দায় ১) জন, রেল সূত্রে ১০ জন, আইআইটি সূত্রে ১ জন এবং শহরে ১১ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। কেশিয়াড়িতে ২ জন; নারায়ণগড়-বেলদা এলাকায় ১২ (বেলদা সবুজপল্লী ৩, বেলদা রেল কোয়ার্টার ২, পুরুষোত্তমপুর ২, দেউলি ১, ময়নাপাড়া ১, উত্তর ভেটিয়া ১, নারায়ণগড়ে ২) জন এবং দাঁতনে ২ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন গত চব্বিশ ঘণ্টায়। অন্যদিকে, গড়বেতার ২ টি ব্লকে মোট ৫ জনের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে গত চব্বিশ ঘণ্টায়। এর মধ্যে, গড়বেতা ১ নং এর আমলাগোড়ায় ২ জন এবং গড়বেতা ২ নং এর রূপাঘাঘরায় ৩ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এছাড়াও, ডেবরায় ৫ (তিলাপাটনা, ধামতোড়, বড়গড় ৩) জন; সবংয়ে ৪ (গ্রামীণ হাসপাতালের ১ জন নার্স, খোলাগেড়িয়া, চকচাঁদপাল, আমদুলিয়া) জন এবং পিংলায় ৮ (অস্তি ২, নয়া ২, কুলতাপাড়া, জলচক, নারানগাদিঘী, ডাংড়া) জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন গত চব্বিশ ঘণ্টায়। অপরদিকে, গত চব্বিশ ঘণ্টায় ঘাটাল মহকুমায় ৪৪ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন।

আরও পড়ুন -   বঙ্গে বর্ষা বিদায়ে অনিশ্চয়তা! পুজোর মুখে নতুন ঘূর্ণিঝড়ের হানা, ষষ্ঠী থেকে দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির আশঙ্কা