করোনা যুদ্ধে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে এবার নিজেই আক্রান্ত হলেন ক্ষীরপাই পৌরসভার চেয়ারপার্সন দুর্গাশঙ্কর পান

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পশ্চিম মেদিনীপুর, ২৮ মে: করোনা যুদ্ধের প্রথম দিন থেকে একেবারে সামনের সারিতে দাঁড়িয়ে নেতৃত্ব দিয়েছেন ক্ষীরপাই পৌরসভার চেয়ারপার্সন দুর্গাশঙ্কর পান। করোনা’র প্রথম ঢেউয়ের সময়ই টাস্ক ফোর্স তৈরি করে, ক্ষীরপাইবাসীকে সুরক্ষিত রাখার চেষ্টা করে গেছেন। দ্বিতীয় ঢেউয়ের সময়ও ছিলেন সমান সক্রিয়। সেই দুর্গাশঙ্কর বাবু’রই করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে শুক্রবার সকালে। আপাততো তিনি গৃহ নিভৃতবাসে আছেন। বছর ৬৫’র দুর্গাশঙ্কর বাবু’র শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল।

thebengalpost.in
দুর্গাশঙ্কর পান :

ক্ষীরপাই পৌরসভার এক কর্মী জানিয়েছেন, “উনি ২৫ তারিখ অর্থাৎ যশ-তাণ্ডবের রাতেও পৌরসভার কন্ট্রোল রুমে বসে পরিস্থিতি নজর রেখেছিলেন। ২৬ তারিখ (বুধবার) দুপুর পর্যন্ত বিভিন্ন কর্মীকে বিভিন্ন দায়িত্ব দিয়েছেন। এরপরই উনি কিছুটা অসুস্থতা অনুভব করায় নিজের নমুনা দিয়েছিলেন। শুক্রবার সেই রিপোর্ট পজিটিভ আসে।” রিপোর্ট পজিটিভ আসার পর দুর্গাশঙ্কর বাবু পৌরবাসী’র উদ্দেশ্যে বার্তা দিয়েছেন, প্রশাসনিক নিয়ম কানুন মেনে চলার জন্য এবং তাঁর সংস্পর্শে আসা কর্মীদের করোনা পরীক্ষা করিয়ে নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। দুর্গাশঙ্কর বাবু’র দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন প্রশাসনিক আধিকারিক থেকে শুরু করে পৌরসভার কর্মীরা এবং আপামর ক্ষীরপাইবাসী।

আরও পড়ুন -   CBI এর সমনেও 'নারুলা'! প্রথম 'খেলা'য় জিতল 'শান্তিকুঞ্জ', 'মাথা নত' না করার বার্তা 'শান্তিনিকেতন' থেকে