কয়লা চুরিতে বাধা দেওয়ায় পশ্চিম মেদিনীপুরে এক সিভিক পুলিশকে ‘খুন’ করার অভিযোগ দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে

thebengalpost.in
এই জায়গাতেই খুন করে ফেলে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ :

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পশ্চিম মেদিনীপুর, ৪ মে:সাত সকালেই এক সিভিক পুলিশ খুন হওয়ার অভিযোগে উত্তাল হল পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা! সিভিক পুলিশকে খুন করে রাস্তার পাশে ফেলে দিয়ে গেছে বলে অভিযোগ পরিবারের। খড়গপুর লোকাল থানার অন্তর্গত হীরাডিতে রাস্তার পাশে সুভাষ রায় নামে এক সিভিক পুলিশের মৃতদেহ উদ্ধার করল খড়্গপুর লোকাল থানার পুলিশ। ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে পুলিশের তরফে।

thebengalpost.in
এই জায়গাতেই খুন করে ফেলে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ :

স্থানীয় সূত্রে খবর, মঙ্গলবার ভোর রাতে ডিউটি থেকে বাড়ি ফেরার পথে তাকে খুন করে রাস্তার পাশে ফেলে দিয়ে গেছে দুষ্কৃতীরা। একই অভিযোগ করা হয়েছে পরিবারের তরফেও। খড়্গপুরের এসডিপিও দীপক সরকার নেতৃত্বে লোকাল থানার পুলিশ গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে এবং ময়নাতদন্তের জন্য খড়্গপুর মহকুমা হাসপাতাল পাঠানোর ব্যবস্থা করে। পরিবারের অভিযোগ দীর্ঘদিন ধরে এই এলাকায় রেক থেকে কয়লা চুরি করে পাচারের কাজ চলত। সেই কাজে অনেকবার বাধা দেয়, বছর ৩২ এর যুবক সুভাষ (পেশায় সিভিক ভলান্টিয়ার)। যারা এই কয়লা পাচারের সঙ্গে যুক্ত, তারা অনেকবারই সুভাষকে হুমকি দিয়েছিল বলে অভিযোগ। সোমবারও তাকে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয় বলে পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে। ওই দুষ্কৃতীরাই খুন করেছে বলে অভিযোগ। দুষ্কৃতীদের কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়েছেন পরিবারের সদস্য থেকে এলাকাবাসী সকলেই।

আরও পড়ুন -   এবার পশ্চিম মেদিনীপুরে সত্যি সত্যিই "খেলা" হল! অভিযোগের তীর তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের দিকে