আকাশে মেঘের ঘনঘটা! আজকেও দুই মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম সহ দক্ষিণবঙ্গে ঝড়-বৃষ্টির পূর্বাভাস

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, মেদিনীপুর, ১৮ এপ্রিল: “মধ্যদিনের রক্তনয়ন অন্ধ করিল কে!/ ধরনীর পরে বিরাট ছায়ার ছত্র ধরিল কে!/ কানন-আনন পাণ্ডুর করি’/জল-স্থলের নিঃশ্বাস হরি’/আলয়ে-কুলায়ে তন্দ্রা ভুলায়ে গগন ভরিল কে!” কবি মোহিতলাল মজুমদারের “কালবৈশাখী” কবিতার এই লাইনগুলি স্মরণ করিয়ে দিল আজ দুপুরের পর সৃষ্টি হওয়া মেদিনীপুরে কালো আকাশ। দুই মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম সহ দক্ষিণবঙ্গের বিস্তীর্ণ এলাকায় গতকালের পর আজও বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে আবহাওয়া দপ্তরের পক্ষ থেকে। সঙ্গে ৪০-৫০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়ারও সম্ভাবনা আছে উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গে। এর মধ্যেই, দুপুরের পর বিভিন্ন এলাকায় আকাশে কালো মেঘের ঘনঘটা। বৃষ্টিও শুরু হয়ে গেছে মেদিনীপুর, খড়্গপুর সহ বিভিন্ন এলাকায়!

thebengalpost.in
মেদিনীপুরের আকাশ :

গতকাল কালবৈশাখীর ঝড়-বৃষ্টিতে দক্ষিণবঙ্গের তাপমাত্রা ২ থেকে ৫ ডিগ্রি পর্যন্ত নেমে গেছে এলাকা বিশেষে। জঙ্গলমহলের ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম মেদিনীপুর সহ বিভিন্ন এলাকায় প্রায় শুকিয়ে যাওয়া কুঁয়ো কিংবা জলাশয়গুলিতে কিছুটা হলেও প্রাণের সঞ্চার হয়েছে। আজকেও যদি বৃষ্টি হয়, নিঃসন্দেহে খুশি হবেন জঙ্গলমহল সহ সমগ্র দক্ষিণবঙ্গ বাসী। তবে, গতকাল শিলাবৃষ্টিতে বিভিন্ন এলাকায় বোরো ধানের ক্ষতি হয়েছে বলে জানা গেছে। বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি চাষের ক্ষতি করলেও, এই মুহূর্তে কয়েকদিনের টানা বৃষ্টির অপেক্ষাতেই আছেন দক্ষিণবঙ্গ বাসী!

thebengalpost.in
শালবনী (ছবি : সংগৃহীত) :

শালবনীর আকাশ (ছবি : সংগৃহীত)

আরও পড়ুন -   বিপর্যয়ের মধ্যেও জীবনের জয়গান! সদ্যজাতকে উদ্ধার করল NDRF, বিপর্যস্ত প্রায় ১ কোটি মানুষের মধ্যে প্রাণহানি ১ জনের, দিনের শেষে 'নায়ক' যোদ্ধারাই