বুদ্ধ-হীন ব্রিগেড! ঐতিহাসিক সমাবেশের প্রাক্কালে আবেগমথিত বার্তা প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, কলকাতা, ২৮ ফেব্রুয়ারি: ব্রিগেডে থাকছেন না বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য! ঐতিহাসিক ব্রিগেড সমাবেশে থাকতে না পারার বেদনা তাই আবেগমথিত বার্তায় প্রকাশ করলেন, রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা রাজ্য রাজনীতির এই ব্যতিক্রমী ব্যক্তিত্ব। পাম অ্যাভেনিউ’র দু’কামরার ফ্ল্যাটে বন্দী, অসুস্থ বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য লিখলেন- “ব্রিগেড সমাবেশ নিয়ে বিভিন্নভাবে খবরাখবর নেওয়ার চেষ্টা করছি। শুনে বুঝতে পারছি বহু মানুষ সমাবেশে আসবেন এবং অনেকে এসে গেছেন। বড় সমাবেশ হবে। এরকম একটা বৃহৎ সমাবেশে যেতে না পারার মানসিক যন্ত্রণা বোঝানো যাবে না। মাঠে ময়দানে কমরেডরা লড়াই করছেন আর আমি শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে ডাক্তারবাবুদের পরামর্শ মেনে চলেছি। ময়দানে মিটিং চলছে আর আমি গৃহবন্দী যা কোনদিন কল্পনাও করতে পারিনি!”

thebengalpost.in
বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য (ফাইল ছবি) :

প্রসঙ্গত, বামেদের এবারের ব্রিগেডে থাকছে, জোটসঙ্গী কংগ্রেস নেতৃত্ব। থাকার কথা, আরেক জোটসঙ্গী আইএসএফ এর আব্বাস সিদ্দিকীরও। তা সত্ত্বেও, ব্রিগেড মানেই বামেদের কাছে এক অন্য ধরনের আবেগ! লক্ষ লক্ষ নেতা-কর্মী-সমর্থকদের সমাবেশ। নির্বাচনের আগে দেওয়া শেষ মুহূর্তের বার্তা। ব্রিগেড থেকে বেঁধে দেওয়া সুরেই তৈরি হয় বুথে বুথের স্লোগান। গত লোকসভা নির্বাচনের (২০১৯) সময়ও গুরুতর অসুস্থ ছিলেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। তা সত্ত্বেও, চিকিৎসকদের অনুমতি নিয়ে, নাকে অক্সিজেনের নল লাগিয়েই ঐতিহাসিক ব্রিগেডে প্যারেড গ্রাউন্ডে পৌঁছে গিয়েছিল তাঁর সাদা অ্যাম্বাসেডর। সঙ্গে ছিলেন সর্বক্ষণের সঙ্গী স্ত্রী মীরা ভট্টাচার্য এবং আপ্ত সহায়ক তপন দাস। গাড়ি থেকে নামতে না পারলেও, তাঁর উপস্থিতি এবং দূর থেকে স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে হাত নাড়াতেই উজ্জ্বীবিত হয়েছিলেন নেতা, কর্মী, সমর্থকেরা। এবার আর সেই শক্তিটুকুও নেই। অনুমতি দেননি চিকিৎসকেরাও। তাই, গৃহবন্দী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য দূর থেকেই তাঁর প্রিয় কমরেডদের দিলেন বার্তা।

thebengalpost.in
২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনের আগে ব্রিগেডে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য :

আরও পড়ুন -   শাসক-বিরোধী! সভার ৭ দিন আগেই 'প্রবেশ বন্ধ' মাঠে, আগেও রাতেও 'জমজমাট'