“মুখে কালো কাপড় বেঁধে গ্রামবাসীদের হুমকি দিচ্ছে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা”, রাত ২ টোর সময় নারায়ণগড় থানায় ধর্না দিলেন বিজেপি প্রার্থী রমাপ্রসাদ গিরি

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পশ্চিম মেদিনীপুর, ২৫ মার্চ: পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার নারায়ণগড় বিধানসভার বিজেপি প্রার্থী রমাপ্রসাদ গিরি বৃহস্পতিবার গভীর রাতে, নারায়ণগড় থানায় পৌঁছে ধর্না দিলেন নিজেদের কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে। তাঁর অভিযোগ, “তৃণমূলের গুন্ডাবাহিনী রাতের অন্ধকারে সাধারণ মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে হুমকি দিচ্ছে মুখে কালো কাপড় বেঁধে। বুধবার বিজেপির মিছিলে তাঁরা পা মিলিয়েছিলেন বলেই হুমকি দেওয়া হচ্ছে, দেখে নেওয়ার কথা বলা হচ্ছে। তাই সাধারণ মানুষ যদি নিশ্চিন্তে ঘুমাতে না পারে, আমি প্রর্থী হয়ে ঘুমাবো কি করে। যতক্ষণ না পুলিশ ব্যবস্থা নিচ্ছে, এই থানাতেই আমরা বসে থাকব।” পুলিশের তরফে জানানো হয়, বৃহস্পতিবার সকালে অভিযোগ খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কিন্তু, রমাপ্রসাদ বাবু সহ বিজেপি কর্মীরা নিজেদের সিদ্ধান্তে অনড় থাকেন। রাত্রি আড়াইটা (২৫ শে মার্চ) অবধি অর্থাৎ এই প্রতিবেদন লেখার সময় পর্যন্ত তাঁরা থানাতেই আছেন।

thebengalpost.in
বিজেপি প্রার্থী রমাপ্রসাদ গিরি বুধবার জনসংযোগে :

প্রসঙ্গত, নারায়ণগড় বিধানসভায় এবার ত্রিমুখী লড়াই। একদিকে বিজেপি প্রার্থী রমাপ্রসাদ গিরি, অন্যদিকে তৃণমূল প্রার্থী সূর্যকান্ত অট্ট এবং সিপিআইএম তথা জোট প্রার্থী তাপস সিনহা’র লড়াই এবার হাড্ডাহাড্ডি হওয়ার সম্ভাবনা! এমনিতেই, নারায়ণগড় এলাকাতে রাজনৈতিক উত্তেজনা থাকে সারাবছরই। তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের অভিযোগও আছে। বিভিন্ন কারণে এবার আর প্রার্থী করা হয়নি এলাকার বর্তমান বিধায়ক প্রদ্যোৎ ঘোষ’কে। তার বদলে তৃণমূল প্রার্থী হয়েছেন সূর্যকান্ত অট্ট। বিজেপি প্রার্থী রমাপ্রসাদ গিরি এই সূর্য অট্ট গোষ্ঠীর দিকে মারাত্মক অভিযোগ তুলে জানালেন, “আমি প্রার্থী হওয়ার পর থেকে একাধিকবার নির্বাচন কমিশনে জানিয়েছি, এই বিধানসভার অন্তর্গত মকরামপুর ১ নং অঞ্চলে ৪ জন খুন হয়েছেন। তারা কেউই বিরোধী দলের কর্মী নয়, সকলেই তৃণমূল কর্মী! গোষ্ঠী দ্বন্দ্বের জেরে খুন হয়েছে। ওই এলাকা, বিশেষ করে ১-১৮ নং বুথ দুষ্কৃতীদের মুক্তাঞ্চলে পরিণত হয়েছে। কোনও ভোট করতে দেওয়া হয়না। ভোট লুট করা হয়। তৃণমূল কর্মীদেরই সেখানে নিরাপত্তা নেই, তাহলে বিজেপি কর্মী সমর্থকদের অবস্থাটা ভাবুন!” রমাপ্রসাদ বাবু এদিন একটি ভিডিওবার্তায় সরাসরি অভিযোগ করেছেন, তৃণমূল প্রার্থী সূর্যকান্ত অট্টের ঘনিষ্ঠ লক্ষ্মী সিটের দিকে। তিনি বলেন, “লক্ষ্মী সিট তার গুন্ডাবাহিনী নিয়ে এলাকাবাসীকে হুমকি দিচ্ছে। অবিলম্বে তাদের গ্রেফতার করতে হবে।” রমাপ্রসাদ বাবু এও বলেন, “DM, SP দের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছি। তাই থানাতেই সারারাত ধর্না দেব।” পুলিশের তরফে সকালে ব্যবস্থা নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

thebengalpost.in
বিজ্ঞাপন (Advertisement) :

আরও পড়ুন -   দু'দিন পরেই ভোট কেশপুরে, তার আগেই ফের উত্তপ্ত পশ্চিম মেদিনীপুরে এই অতি-স্পর্শকাতর এলাকা