মেদিনীপুরে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও সাংবাদিকদের উপর হামলার ঘটনায় ৮ জন গ্রেফতার, ৩ পুলিশকর্মীর বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্ত

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পশ্চিম মেদিনীপুর, ৬ মে: পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার মেদিনীপুর সদর ব্লকের পাঁচখুরিতে বৃহস্পতিবার দুপুরে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পি. মুরলিধরণের কনভয়ে হামলার ঘটনায় ৮ জনকে গ্রেফতার করার কথা জানিয়েছেন জেলা পুলিশ সুপার দীনেশ কুমার। সঙ্গে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা কোতোয়ালী থানার ৩ জন পুলিশকর্মীকে এই ঘটনায় শোকজ করা হয়েছে এবং তদন্ত শুরু করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। প্রসঙ্গত, মেদিনীপুর সদর ব্লকের পাঁচখুরি গ্রামে নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পর থেকেই বিজেপি কর্মীদের উপর লাগাতার হামলা চালানোর অভিযোগ উঠছে। আতঙ্কে ঘরছাড়া হয়েছে অনেকেই। আজ বেলা ১২ টা নাগাদ ওই গ্রাম পরিদর্শনে গিয়ে কেন্দ্রীয় বিদেশ প্রতিমন্ত্রী পি মুরলিধরণ ও বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বেনজির হামলার মুখে পড়েন। তাঁদের গাড়ি ভাঙচুর করা হয়। অবিরাম ইট বৃষ্টি চলতে থাকে। আহত হয় মন্ত্রীর গাড়ির চালক ও তাঁর পি.এ। সেই ছবি তুলতে গিয়ে আক্রান্ত হয় সাংবাদিকরাও। গুরুতর জখম হয় রিপাবলিক টিভির প্রতিনিধি সুদীপ্ত দাস ও ক্যামেরাম্যান মৃন্ময় চক্রবর্তী (ঝন্টু) এবং সিএন এর প্রতিনিধি অভিষেক চক্রবর্তী। তীব্র সমালোচনার মুখে, এই ঘটনায় শেষপর্যন্ত পদক্ষেপ নিল জেলা পুলিশ।

thebengalpost.in
সাংবাদিক অভিষেক চক্রবর্তীর উপর হামলা :

উল্লেখ্য যে, সুদীপ্ত ও অভিষেকের মাথায় এবং ঝন্টু’র পায়ে চোট লেগেছিল। মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজে তাদের চিকিৎসা চলছিল। এক্স-রে রিপোর্টে গুরুতর কিছু ধরা না পড়ায়, ৩ জনকেই সন্ধ্যা নাগাদ ছেড়ে দেওয়া হয়‌‌। এই ঘটনার তীব্র সমালোচনা করে বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা সরাসরি জানিয়েছিলেন, হামলার সময় পুলিশকর্মীদের ভূমিকা ছিল নিন্দনীয়। তারা ভয়ে পালিয়ে আসেন! এই বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করে একটি ভিডিওবার্তায় তিনি মুখ্যমন্ত্রীর কাছে পদক্ষেপ নেওয়ার আবেদন জানিয়েছিলেন। শেষপর্যন্ত, জেলা পুলিশের তরফে প্রাথমিকভাবে পদক্ষেপ নেওয়ায় আশ্বস্ত সংশ্লিষ্ট মহল।

thebengalpost.in
আক্রান্ত সাংবাদিকদের ভর্তি করা হয়েছিল মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজে :

thebengalpost.in
কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর গাড়িতে হামলা :

আরও পড়ুন -   বিজেপি প্রার্থীর পোস্টার ছেঁড়া নিয়ে চাঞ্চল্য মেদিনীপুর শহরে, অভিযোগের আঙুল তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের দিকে