সরাসরি যুদ্ধ ঘোষণা! মুখ্যসচিব পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর মুখ্য উপদেষ্টা হলেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, কলকাতা, ৩১ মে : এ যেন ‘বিনা যুদ্ধে নাহি দিব সূচাগ্র মেদিনী!’ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী’র কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে সরাসরি যুদ্ধ ঘোষণা করল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজ্য সরকার। আর, সেই যুদ্ধে বাঙালি আইএএস (IAS) আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় বিশ্বস্ত সেনাপতির মতোই বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর পাশে এসে দাঁড়ালেন! কেন্দ্রের ডাকে দিল্লি না গিয়ে মুখ্যসচিবের পদ থেকেই ইস্তফা দিয়ে দিলেন তিনি। আজ রাত ১২ টার পর থেকেই প্রাক্তন আইএএস অফিসার হিসেবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রধান উপদেষ্টা বা মুখ্য উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করবেন।

thebengalpost.in
আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় :

উল্লেখ্য যে, মুখ্যসচিব হিসেবে আজকেই মেয়াদ পূর্ণ হওয়ার কথা ছিল আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের। কিন্তু, রাজ্যের তরফে তাঁর মেয়াদ বৃদ্ধির আবেদন করা হয়েছিল ৩ মাসের জন্য। কেন্দ্র সরকার সেই আবেদনে সাড়াও দিয়েছিল। তার পরেই শুরু হয় আঘাত-প্রত্যাঘাতের পালা! মুখ্যসচিব আলাপনকে ডেকে পাঠানো হয় দিল্লিতে। আজ সকাল ১০ টার মধ্যে তাঁর রিপোর্টিং করার কথা ছিল। তা তিনি করেননি! উল্টে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন কেন্দ্রীয় সরকারের দিকেই। মুখ্যসচিবের তথা আইএএস পদাধিকারী’র পদটাই ছেড়ে দিলেন তিনি। আগামীকাল থেকে তিনি প্রাক্তন আইএএস অফিসার হিসেবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখ্য উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব সামলাবেন আগামী ৩ বছরের জন্য। অপরদিকে, রাজ্যের পরবর্তী মুখ্যসচিব হচ্ছেন স্বরাষ্ট্রসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী। আগামীকাল থেকে নতুন স্বরাষ্ট্রসচিব হচ্ছেন বিপি গোপালিকা। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, “আলাপন অবসর নিলেন। তাঁর আজই অবসর নেওয়ার কথা ছিল। কেন্দ্রীয় সরকার ৩ মাসের জন্য মেয়াদ বৃদ্ধি করেও রাজনৈতিক প্রতিহিংসা নিয়েছে। কেন্দ্র তাঁকে ডাকার কারণ দেখায়নি। একদিন ওদের পস্তাতে হবে।”

thebengalpost.in
নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী ও মুখ্যসচিব (ফাইল ছবি) :

আরও পড়ুন -   'হঠাৎ আগুন লাগলে' কি করবেন পুজো উদ্যোক্তারা, প্রশিক্ষণ দিল মেদিনীপুর দমকল বাহিনী, জীবাণুমুক্ত করা হল শহরের পুজো মণ্ডপ ও রাস্তাঘাটগুলি