ডেবরা, সবং, খড়্গপুর, কেশপুর, চন্দ্রকোনা, বেলদা, দাঁতন সহ জেলা জুড়ে সংক্রমিত ১৯৪ জন, অমীমাংসিত শতাধিক

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পশ্চিম মেদিনীপুর, ২৯ আগস্ট: পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা স্বাস্থ্য ভবনের শনিবারের রাতের আরটি-পিসিআর ও র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষার রিপোর্ট অনুযায়ী, জেলায় মোট করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা ১৯৪ জন। র‌্যাপিড অ্যান্টিজেনে ৭৭ জন এবং মেডিক্যাল কলেজের আরটি-পিসিআরে ১১৭ জন সংক্রমিত। এছাড়াও, ১০০ টিরও বেশি নমুনা’র রিপোর্ট অমীমাংসিত এসেছে বলে জানা গেছে স্বাস্থ্য ভবন সূত্রে। এরমধ্যে, শুধু দাঁতন ১ নং ব্লকে ৪১ জনের রিপোর্ট অমীমাংসিত এসেছে এবং খড়্গপুরের ৩৫ জন রেলকর্মী’র রিপোর্ট অমীমাংসিত এসেছে। মেদিনীপুর শহর ও শহরতলীতে ৬০ জন ছাড়াও, খড়্গপুরে প্রায় ৪৫ জন, সবং এর ১০ পুলিশকর্মী, ডেবরা, কেশপুর, নারায়ণগড়, কেশিয়াড়ি, মোহনপুর দাঁতন, কেশপুর, চন্দ্রকোনা (১) এবং ঘাটাল এলাকায় একাধিক মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। অধিকাংশ জন উপসর্গহীন এবং স্বল্প উপসর্গযুক্ত হলেও, বেশ কিছু সংখ্যক মানুষের শরীরে উপসর্গ বর্তমান। জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর সেই অনুযায়ী পদক্ষেপ গ্রহণ করছে বলে জানা গেছে।

thebengalpost.in
পশ্চিম মেদিনীপুরে বিপুল সংক্রমণ :

র‌্যাপিড অ্যন্টিজেন পরীক্ষার রিপোর্ট অনুযায়ী, খড়্গপুরে ২৪ জন করোনা আক্রান্ত এবং আরটি-পিসিআর অনুযায়ী ২১ জন। অ্যান্টিজেন রিপোর্টে, খড়্গপুর পৌরসভার ২৩ নং ওয়ার্ডের ইন্দা সংলগ্ন গোয়ালাপাড়া এলাকায় এক ব্যক্তির (৩৫) করোনা পজিটিভ এসেছে। এছাড়াও ২৪ নং ওয়ার্ডের সাঁজোয়াল এলাকায় দুই ব্যক্তি (৩৭ ও ৪৩ বছর) করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা যায় । তবে তাঁরা প্রত্যেকেই উপসর্গহীন বলে জানা যায়। রেলশহরের মালঞ্চার অন্তর্গত বিবেকানন্দ পল্লীতে এক বৃদ্ধার (৫৫) করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। খড়্গপুরের ঝাপেটাপুর এলাকায় তিন জন (যুবক-২২, কিশোর-১২, বৃদ্ধা-৫৮) করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন । এছাড়াও, বলরামপুর, গোপালী, রঘুনাথপুর সহ খড়্গপুর গ্রামীণেও আক্রান্তের হদিস মিলছে। এদিকে, আরটি-পিসিআরের রিপোর্টে, খড়্গপুর শহরের যে ২১ জনের করোনা সংক্রমিত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে, তাঁরা প্রত্যেকেই দক্ষিণ পূর্ব রেলওয়ের খড়্গপুর শাখার কর্মী অথবা পরিবারের সদস্য বলে জানা গেছে। এক্ষেত্রে, একই পরিবারের একাধিক জনও আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে, সুভাষপল্লি এলাকায় এক বৃদ্ধ (৮৬) করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা যায়। খড়্গপুর পুরসভায় খরিদার বনালিপাড়ায় (মিনাল মন্দিরের কাছে) একই পরিবারের ৩ জন (পুরুষ-৪৮, কিশোরী-১০, কিশোরী-৭) করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। খড়্গপুর নিউ সেটেলমেন্ট (রেলের আবাসন MSD1, unit 4) এলাকায় ফের একই পরিবারের তিনজনের (যুবক-২১, যুবক-২৭, যুবতী-২৩) করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এছাড়াও ওই একই আবাসনের এক বৃদ্ধ (৫৪) , এক বৃদ্ধা (৫১) সহ এক যুবতীর (১৯) করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। ছোট ট্যাংরা সংলগ্ন একটি ফ্ল্যাটে ৪৩ বছর বয়সী এক মহিলা আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা যায়। সাঁজোয়াল (দুর্গা মন্দির) ও সাউথ সাইডের রেল আবাসন (বৃদ্ধ- ৫৬, পুরুষ- ৩৭) এলাকায় মোট ৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন। আই.আই.টি খড়্গপু্রে এই নিয়ে মোট করোনায় আক্রান্ত হলেন ১৫জন। বুধবার ৬ জনের পরেও বৃহস্পতিবার ফের অ্যন্টিজেন পরীক্ষায় ফের ২ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। শনিবার রাতের রিপোর্ট অনুযায়ী খড়্গপুর আই.আই.টি তে আবারো ৩ জন সংক্রমিত হয়েছেন। রেলশহর খড়্গপুরে ১৬ নং ওয়ার্ডের ভগবানপুর এলাকায় মোট ৩ জন (মহিলা-৩২, যুবক-২০, যুবতী-২৮) এর করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। যদিও তাঁরা প্রত্যেকেই উপসর্গহীন। রেলশহরের ৮ নং ওয়ার্ডের রাজাগ্রাম (মহিলা-৩৪) ও খরিদা সংলগ্ন বাঙালী পাড়াতেও ( যুবতী-৩০) দু’জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাঁরাও উপসর্গহীন। ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের খরিদা সংলগ্ন বিধানপল্লী এলাকায় এক বৃদ্ধের (৬০) করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। খড়্গপুরের মিরপুর এলাকায় একই পরিবারের দুই মহিলা (৪১ ও ৭৪) করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা যায়। এছাড়াও, রেলশহরের ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের বিবেকানন্দ পল্লী এলাকায় এক বৃদ্ধের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। বিভিন্ন এলাকার আরো ৫ জন সহ মোট ৪৫ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন খড়্গপুরে।

আরও পড়ুন -   উপেক্ষা করতে চেয়েও মোছা গেলনা শুভেন্দু অনুগামীদের, ভারসাম্য রাখতে গিয়ে সুদীর্ঘ জেলা কমিটি তৃণমূলের
thebengalpost.in
রেল মেইন হাসপাতাল (খড়্গপুর) :

অন্যদিকে, র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টে সবং থানার ১০ জন পুলিশকর্মী, ডেবরা এলাকার ৪ জন (আষাঢ়ীর ২ জন, খাজুরী ও বাসুদেবপুর ১ জন), কেশপুরের ৪ জন, মোহনপুর ব্লকের ৯ জন, চন্দ্রকোনা ১ এর ৬ জন, নারারয়ণগড়, দাঁতন ও দাসপুরের একাধিক ব্যক্তি করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। আরটি-পিসিআর অনুযায়ী, বেলদার ১৮ জন, কেশিয়াড়ির ২ জন, দাঁতন ২ নং এ ৬ জন ও ঘাটালে ৫ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। সর্বোপরি, দাঁতন, খড়্গপুর, ডেবরা, সবং প্রভৃতি এলাকার অনেক রিপোর্ট অমীমাংসিত এসেছে। শনিবারও তাই আশঙ্কা থেকে যাচ্ছে ব্যাপকহারে করোনা সংক্রমণের!
***আরো পড়ুন : মেদিনীপুরে রেকর্ড সংখ্যক করোনা সংক্রমণ…..