গত চব্বিশ ঘণ্টায় মেদিনীপুরে ৩০ ও খড়্গপুরে ৪০ জন করোনা সংক্রমিত, ডেবরা, গোয়ালতোড়, গড়বেতা, নারায়ণগড় সহ জেলায় ১১৩ জন

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পশ্চিম মেদিনীপুর, ৫ সেপ্টেম্বর: পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় গত চব্বিশ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১১৩ জন। শনিবার সকালে জেলা স্বাস্থ্য ভবন সূত্রে জানা গেছে, র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টে ১১৩ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। ১০৬৩ জনের র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট করা হয়েছিল। তবে, প্রায় ৫০০ জনের লালারসের নমুনা আরটি-পিসিআর টেস্টের জন্য কলকাতায় পাঠানো হয়েছিল, সেগুলি সবই ‘নেগেটিভ’ এসেছে বলে জানা গেছে। ১১৩ জন করোনা সংক্রমিতের মধ্যে মেদিনীপুর শহরে এদিনও ৩০ জন আক্রান্ত হয়েছেন। তবে, অধিকাংশ জনই উপসর্গহীন বলে তাঁরা হোম আইসোলেশনে আছেন। কয়েকজন’কে করোনা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানা যায়। খড়্গপুর শহরে ৪০ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। এর মধ্যে, সাউথসাইডের ধোবিঘাট এলাকারই ২৫ জন। যাঁরা রেলকর্মী কিংবা রেল-কর্মী পরিবারের সদস্য। এছাড়াও, গোয়ালতোড়, গড়বেতা ডেবরা, নারায়ণগড়, দাসপুর প্রভৃতি এলাকা থেকেও করোনা সংক্রমিতের সন্ধান পাওয়া গেছে। যাঁদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের জ্বর, শ্বাসকষ্ট সহ বিভিন্ন উপসর্গ আছে বলে জানা গেছে স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে। প্রতিটি ক্ষেত্রেই যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

thebengalpost.in
পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় সংক্রমিত ১১৩ জন :

মেদিনীপুর শহর তথা মেডিক্যাল কলেজের একজন অভিজ্ঞ চিকিৎসকের (৩৯) করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে বলে জানা যায়। তবে, সামান্য জ্বরের উপসর্গ থাকায় তিনি হোম আইসোলেশনেই আছেন। সূত্রের খবর অনুযায়ী, মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজের আরো একজন চিকিৎসক সহ বেশ কয়েকজন স্বাস্থ্যকর্মীর করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে অ্যান্টিজেন টেস্টে। মেদিনীপুর পৌরসভার এক স্বাস্থ্যকর্মী সংক্রমিত হওয়ায় ইতিমধ্যে পৌরসভা বন্ধ করে দিয়ে জীবাণুমুক্ত করা হয়েছে। এছাড়াও, কোতোয়ালী থানার চারজন পুলিশকর্মী’র রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে বলে জানা গেছে। কালগাঙের একটি পরিবারের চারজন এবং সিপাই বাজারে একটি পরিবারের ২ জন সহ মোট ৩ জন, কর্ণেলগোলাতে ২ জন, আবাস ও কুইকোটার ২ টি পরিবারে ২ জন করে মোট ৪ জন, নজরগঞ্জে একটি পরিবারে ২ জন ও হাঁসপুকুর এলাকার একটি পরিবারে ২ জন এবং মির্জাবাজারে ২ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। এছাড়াও, বল্লভপুর, শরৎপল্লী, গোয়ালাপাড়া, তালপুকুর প্রভৃতি এলাকা থেকে ১ জন করে করোনা আক্রান্তের সন্ধান পাওয়া গেছে। বেশিরভাগ সংক্রমিতের শরীরে ব উপসর্গ না থাকলেও, বেশ কয়েকজনের শরীরে স্বল্প বা যথেষ্ট উপসর্গ রয়েছে।

thebengalpost.in
মেদিনীপুর শহরে সংক্রমিত ৩০ জন :

খড়্গপুর শহর ও শহরতলী মিলিয়ে রেকর্ড ৪০ জন সংক্রমিত হয়েছেন। এর মধ্যে একটি এলাকা (২৬ নং ওয়ার্ড, সাউথসাইড, ধোবিঘাট) থেকে ২৫ জন ও ঝাপেটাপুর, মালঞ্চ, হিজলী সহ বিভিন্ন এলাকায় আরো ১৫ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। গড়বেতা ২ নং ব্লকের গোয়ালতোড়ের ২ জন, আমলাশুলির ৩ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। যাদের মধ্যে ২ জন প্রথম সারির করোনা যোদ্ধা বলে জানা যায়। শালবনীর ছাতনি এলাকারও একজনের শরীরে করোনা ভাইরাসের জীবাণু পাওয়া গেছে। উপরিউক্ত ৬ জনের শরীরে জ্বর ও কাশি’র উপসর্গ থাকায় তাদের লেভেল ফোর শালবনী করোনা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে। গড়বেতা ৩ নং ব্লকেও ২ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। এদিকে, পিংলার একজন, রাধামোহনপুরের একজন এবং ডেবরা’র ২ জন (সাতরুখী-চকবাজিত, পাঁচগেড়িয়া) সহ ডেবরা ব্লকের মোট ৪ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। এদের শরীরেও করোনা’র উপসর্গ রয়েছে বলে জানা যায়। এদিকে, নারায়ণগ, দাঁতন, মোহনপুর ও দাসপুরের একাধিক ব্যক্তির রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে এদিন।
***আরো পড়ুন: গোষ্ঠী সংক্রমণ রুখতে ৮ দিনের জন্য বন্ধ আইআইটি…

আরও পড়ুন -   নির্বাচনের আগের দিনই পশ্চিম মেদিনীপুরের শালবনীতে বিজেপি কর্মীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার, এলাকায় চাঞ্চল্য